বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আড়ালেই যুদ্ধ, ধরা পড়বে না শত্রুর রাডারে! কলকাতায় রাজনাথ, জলে ভাসল রণতরী
জলে ভাসল দুনাগিরি। সংগৃহীত ছবি

আড়ালেই যুদ্ধ, ধরা পড়বে না শত্রুর রাডারে! কলকাতায় রাজনাথ, জলে ভাসল রণতরী

  • প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জমানায় বার বারই আত্মনির্ভরতার উপর জোর দেওয়া হয়েছে। প্রতিরক্ষাক্ষেত্রেও আত্মনির্ভরতার কথা বলা হচ্ছে। আর এবার বিদেশ থেকে নয় ফের গার্ডেনরিচে তৈরি অত্যাধুনিক যুদ্ধ জাহাজ ভাসল হুগলি নদীর জলে।

আইএনএস দুনাগিরি। সব মিলিয়ে ওজন ৬,৬০০ টন। ছোট সাইজের যুদ্ধ জাহাজ বলেই পরিচিত। তবে ছোট হলে কী হবে শক্তিতে ও দক্ষতায় কারোর থেকে কম নয়। শুক্রবার কলকাতায় হুগলি নদীর জলে ভাসল সেই রণতরী। প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের হাত ধরে এই রণতরীর আনুষ্ঠানিকভাবে পথ চলা শুরু হল। আর সেটাও একেবারে কলকাতা থেকেই। গার্ডেনরীচে নৌবাহিনীর কর্মসূচিতে এই রণতরীর সূচনা করলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং।

একেবারে যেন মেঘনাদ। রামায়ণে বর্ণিত মেঘের আড়ালে থেকে যেভাবে যুদ্ধ করতেন তিনি, ঠিক তেমনই এই যুদ্ধ জাহাজ। সমুদ্রের গভীরে গেলেই শত্রুপক্ষের কাছ থেকে আড়াল খুঁজে নিতে পারে এই অত্যাধুনির রণতরী। এরপর ধ্বংস করে দিতে পারে শত্রুপক্ষের যুদ্ধ জাহাজ। এমনকী শক্তিশালী ক্ষেপনাস্ত্রের মাধ্যমে উড়িয়ে দিতে পারে আস্ত একটা বন্দর।

 

কলকাতার গার্ডেনরিচ শিপ বিল্ডার্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেডের উদ্যোগে তৈরি হয়েছে যুদ্ধ জাহাজ। কিন্তু কীভাবে এটি শত্রুপক্ষের কাছ থেকে আড়াল খুঁজতে পারে? সূত্রের খবর, আসলে শত্রুপক্ষের রাডারে ধরা পড়বে না এর গতিবিধি। স্টেলথ প্রযুক্তি সংযোজিত রয়েছে এই যুদ্ধ জাহাজে। তবে এর আগেও স্টেলথ জাতীয় যুদ্ধ জাহাজ জলে ভাসানো হয়েছিল। তবে এবার এই আইএনএস দুনাগিরি নিঃসন্দেহে ভারতীয় নৌবাহিনীকে চূড়ান্ত শক্তিশালী করল এবার।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জমানায় বার বারই আত্মনির্ভরতার উপর জোর দেওয়া হয়েছে। প্রতিরক্ষাক্ষেত্রেও আত্মনির্ভরতার কথা বলা হচ্ছে। আর এবার বিদেশ থেকে নয় ফের গার্ডেনরিচে তৈরি অত্যাধুনিক যুদ্ধ জাহাজ ভাসল হুগলি নদীর জলে।

বন্ধ করুন