বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > পিছলো শুনানি, অনুব্রতর দিল্লি যাত্রা নিয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে বুধবার

পিছলো শুনানি, অনুব্রতর দিল্লি যাত্রা নিয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে বুধবার

গ্রাফিক্সে জেলবন্দি অনুব্রত মণ্ডল।

সোমবার প্রথম মামলাটির শুনানি হওয়ার কথা ছিল দিল্লি হাইকোর্টে। এদিন মামলা আদালতে উঠলে দেখা যায় বেঞ্চ বদলে গিয়েছে। সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আরও এক মামলা। এর মধ্যে অনুব্রতর আইনজীবী দাবি করেন, মামলা পুরনো বেঞ্চে ফিরিয়ে দেওয়া হোক।

দিল্লি হাইকোর্টে পিছিয়ে গেল অনুব্রত মণ্ডলকে দিল্লি নিয়ে গিয়ে জেরা করার বিরোধিতায় দায়ের আবেদনের শুনানি। আগামী ১১ জানুয়ারি মামলাটির শুনানি হবে বলে জানা গিয়েছে। ফলে ওই দিন পর্যন্ত অনুব্রতকে ইডি দিল্লি নিয়ে যাবে না বলেই মনে করা হচ্ছে।

গত ২০ ডিসেম্বর অনুব্রত মণ্ডলের বিরুদ্ধে প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট জারি করে দিল্লির রাউস অ্যাভিনিউ আদালত। সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন অনুব্রত। তাঁর দাবি, নিম্ন আদালতের প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট জারির অধিকার নেই। সঙ্গে আরও একটি মামলা করে অনুব্রত অভিযোগ করেন, তাঁকে ইডি কেন গ্রেফতার করেছে তা জানানো হয়নি।

সোমবার প্রথম মামলাটির শুনানি হওয়ার কথা ছিল দিল্লি হাইকোর্টে। এদিন মামলা আদালতে উঠলে দেখা যায় বেঞ্চ বদলে গিয়েছে। সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আরও এক মামলা। এর মধ্যে অনুব্রতর আইনজীবী দাবি করেন, মামলা পুরনো বেঞ্চে ফিরিয়ে দেওয়া হোক। সেই আবেদনের ভিত্তিতে আদালত জানায়, অনুব্রতর ২টি আবেদনের শুনানিই উপযুক্ত এজলাসে একসঙ্গে হবে। মামলার পরবর্তী শুনানি ১১ জানুয়ারি।

রাউস অ্যাভিনিউ আদালতের এক্তিয়ার চ্যালেঞ্জ করে এর আগেও দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন অনুব্রত। কিন্তু তাতে কোনও কাজের কাজ হয়নি। মামলা নিম্ন আদালতেই ফেরত পাঠিয়েছিল দিল্লি হাইকোর্ট। তার পরই অনুব্রতর বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট জারি করে রাউস অ্যাভিনিউ আদালত। তার পর ফের দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন অনুব্রত।

বলে রাখি, গরুপাচারকাণ্ডে জেরা করার জন্য গত ২১ ডিসেম্বর অনুব্রতকে দিল্লি নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল ইডির। কিন্তু সেদিনই অনুব্রতকে কয়েক ঘণ্টা আগে দায়ের করা এক FIR-এর ভিত্তিতে গ্রেফতার করে বীরভূম পুলিশ। ফলে ভেস্তে যায় ইডির পরিকল্পনা।

 

বন্ধ করুন