বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Dengue: কলকাতায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ছাত্রের মৃত্যু, ভয়াবহ উদ্বেগ, ঘরে ঘরে জ্বর
ফের কলকাতায় ডেঙ্গুর হানা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে সমীর জানা/হিন্দুস্তান টাইমস)

Dengue: কলকাতায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ছাত্রের মৃত্যু, ভয়াবহ উদ্বেগ, ঘরে ঘরে জ্বর

  • পুরকর্তৃপক্ষের দাবি, এই বছর ডেঙ্গু ও ম্য়ালেরিয়ার প্রকোপ কিছুটা কম। তবে ঘিঞ্জি এলাকায় একাধিক বাড়িতে জল জমে থাকছে বলে অভিযোগ। সেখানে মশার আঁতুরঘর তৈরি হচ্ছে। একাধিক বাড়ি তালাবন্ধ হয়ে পড়ে রয়েছে। বহু জায়গায় জল জমে থাকছে। কিন্তু নানা জটিলতায় ভেতরে ঢুকে পরিষ্কার করতে পারছেন না পুরকর্মীরা।

করোনা নিয়ে উদ্বেগ কিছুটা কমতেই এবার কলকাতায় ডেঙ্গুর কাঁটা।ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে কালীঘাটের এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। ৮৩ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা ওই কিশোরের নাম বিশাখ মুখোপাধ্যায়।

বাইপাসের ধারে বেসরকারি হাসপাসালে মৃত্যু হয়েছে অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রের। এদিকে ওই এলাকায় ইতিমধ্যেই অন্তত ২২জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন। অনেকেরই গায়ে জ্বর। মশাবাহিত রোগ যাতে না ছড়ায় সেজন্য এলাকায় সচেতনতা মূলক কর্মসূচিও নেওয়া হয়েছে। কিন্তু উদ্বেগটা থেকেই গিয়েছে। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে দিন পাঁচেক ধরেই ওই কিশোরের গায়ে জ্বর ছিল। কিন্তু এনিয়ে বিশেষ গা করেনি পরিবার। বাড়ির কাছেই রয়েছে পুরসভার স্বাস্থ্যকেন্দ্র। তবে সেখানে তার রক্ত পরীক্ষার জন্য বাড়ির লোকজন নিয়ে যায়নি। কিন্তু তার জ্বর কিছুতেই কমছিল না। পরে তাকে বেসরকারি নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়। সেখানেই জানা যায় তার ডেঙ্গু হয়েছে। তার মৃত্যুতে এলাকায় ব্যাপক উদ্বেগ ছড়িয়েছে। এলাকায় মেধাবী ছাত্র বলেই পরিচিত ছিল বিশাখ। স্থানীয় কাউন্সিলর ডেঙ্গু নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশের দাবি, পুরসভা মশা রুখতে কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না। সন্ধ্যে হলে মশার জ্বালায় টেকা যাচ্ছে না।

এদিকে পুরকর্তৃপক্ষের দাবি, এই বছর ডেঙ্গু ও ম্য়ালেরিয়ার প্রকোপ কিছুটা কম। তবে ঘিঞ্জি এলাকায় একাধিক বাড়িতে জল জমে থাকছে বলে অভিযোগ। সেখানে মশার আঁতুরঘর তৈরি হচ্ছে। একাধিক বাড়ি তালাবন্ধ হয়ে পড়ে রয়েছে। বহু জায়গায় জল জমে থাকছে। কিন্তু নানা জটিলতায় ভেতরে ঢুকে পরিষ্কার করতে পারছেন না পুরকর্মীরা।

বন্ধ করুন