বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > রাজ্যের কৃষকদের কেন্দ্রের কৃষক নিধি পাইয়ে দিতে উদ্যোগী কৃষি দফতর

রাজ্যের কৃষকদের কেন্দ্রের কৃষক নিধি পাইয়ে দিতে উদ্যোগী কৃষি দফতর

কেন্দ্রের কৃষক নিধি রাজ্যের কৃষকদের পাইয়ে দিতে উদ্যোগী কৃষি দপ্তর: ছবি (‌সৌজন্য ফেসবুক)‌

সূত্রের খবর, সেক্ষেত্রে জেলাগুলোর সংশ্লীষ্ট কৃষি দফতরের কাছে কৃষকদের বিস্তারিত তথ্য চেয়ে পাঠিয়েছে রাজ্য কৃষি দপ্তর।একই সঙ্গে কেন্দ্রের প্রাপ্ত অর্থ যাতে সরাসরি কৃষকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকতে পারে, সেই প্রক্রিয়াও শুরু করে দিয়েছে দফতর।

এবার কেন্দ্রের কৃষক নিধি সম্মানের টাকা রাজ্যের কৃষকদের পাইয়ে দিতে উদ্যোগী হল কৃষি দপ্তর।ইতিমধ্যে কৃষকদের তালিকা তৈরি করার পাশাপাশি তাঁদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে যাতে সরাররি সেই টাকা ঢুকে যায়, সেই প্রক্রিয়াও শুরু করেছে রাজ্য সরকার।

সূত্রের খবর, সেক্ষেত্রে জেলাগুলোর সংশ্লীষ্ট কৃষি দফতরের কাছে কৃষকদের বিস্তারিত তথ্য চেয়ে পাঠিয়েছে রাজ্য কৃষি দপ্তর।একই সঙ্গে কেন্দ্রের প্রাপ্ত অর্থ যাতে সরাসরি কৃষকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকতে পারে, সেই প্রক্রিয়াও শুরু করে দিয়েছে দফতর।

এ রাজ্যে নির্বাচনী প্রচারে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কৃষকদের কৃষক নিধি প্রকল্পের আওতায় বছরে ৬ হাজার টাকা হিসাবে মোট তিন বছরে ১৮,০০০ টাকা তাঁদের অ্যাকাউন্টে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। সেই প্রতিশ্রুতির পাল্টা চাল হিসাবে রাজ্যে তৃতীয়বার ক্ষমতায় এসে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চিঠি দিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে তাঁর প্রতিশ্রুতি কথা মনে করিয়ে দিয়েছিলেন।

এবার কৃষিমন্ত্রী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায়ের দফতর কৃষকদের কেন্দ্রীয় এই প্রকল্পের অর্থ পাইয়ে দিতে উদ্যোগ নিয়েছে। অবশ্য যাবতীয় প্রস্তুতির নিয়ে একবার মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে নিতে চাইছেন শোভনবাবু।

এ প্রসঙ্গে কৃষি মন্ত্রী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায় বলেন,  ‘‌কৃষকদের তালিকা তৈরি করার পাশাপাশি তাঁরা যাতে সরাসরি এই অর্থ পেয়ে যান, সেই প্রক্রিয়া শুরু করে দেওয়া হয়েছে। আমরা শুধু মুখ্যমন্ত্রী সবুজ সংকেতের অপেক্ষায় রয়েছি, তিনি তা দিয়ে দিলেই, দ্রুতগতিতে কেন্দ্রের কাছে সেই সমস্ত তথ্য পাঠিয়ে দেওয়া হবে।’‌

কৃষি দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই সেই প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছে তারা। কৃষকদের তালিকা তৈরি করা হচ্ছে। রাজ্যের কোনও কৃষক যাতে এই প্রকল্পের আওতা থেকে বাদ না পড়েন, তালিকা তৈরি করার সময় সেই দিকে বিশেষ নজর দেওয়া হচ্ছে।সেক্ষেত্রে কৃষকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের তথ্য সংগ্রহ করতে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্য।তার পর সংগৃহীত তথ্য মুখ্যমন্ত্রীর সবুজ সংকেত পেলেই কেন্দ্রকে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

বন্ধ করুন