বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অর্জুন চৌরাসিয়ার মৃতদেহের ময়নাতদন্ত শুরু, কম্যান্ড হাসপাতালে কড়া নিরাপত্তা
কাশীপুরে রেল কোয়ার্টারে অর্জুন চৌরাসিয়ার দেহ উদ্ধার করছে পুলিশ।  (PTI)
কাশীপুরে রেল কোয়ার্টারে অর্জুন চৌরাসিয়ার দেহ উদ্ধার করছে পুলিশ।  (PTI)

অর্জুন চৌরাসিয়ার মৃতদেহের ময়নাতদন্ত শুরু, কম্যান্ড হাসপাতালে কড়া নিরাপত্তা

  • আজ সকাল সাড়ে আটটা থেকে ময়নাতদন্ত প্রক্রিয়া শুরুও হয়ে গিয়েছে৷ গোটা কম্যান্ড হাসপাতাল পুলিশি নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে। পরিবারের অভিযোগ এটি খুন। তাই ময়নাতদন্তে স্থগিতাদেশ চায় মৃত অর্জুনের মা। পরে আদালতের নির্দেশ মতো ময়নাতদন্তে রাজি হয় পরিবার।

শুরু হল যুবনেতা অর্জুন চৌরাসিয়ার মৃতদেহের ময়নাতদন্ত। কলকাতা হাইকোর্ট এই ময়নাতদন্ত নিয়ে যে নির্দেশ দিয়েছিল তা মেনে আলিপুরের কম্যান্ড হাসপাতালে শুরু হল কাশীপুরের নিহত যুবনেতা অর্জুন চৌরাসিয়ার ময়নাতদন্ত৷ আজ, শনিবার সকালে গ্রিন করিডর করে অর্জুনের দেহ আর জি কর হাসপাতাল থেকে কম্যান্ড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷

কেমন নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়?‌ হাসপাতাল সূত্রে খবর, আজ সকাল সাড়ে আটটা থেকে ময়নাতদন্ত প্রক্রিয়া শুরুও হয়ে গিয়েছে৷ গোটা কম্যান্ড হাসপাতাল পুলিশি নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে। পরিবারের অভিযোগ এটি খুন। তাই ময়নাতদন্তে স্থগিতাদেশ চায় মৃত অর্জুনের মা। পরে আদালতের নির্দেশ মতো ময়নাতদন্তে রাজি হয় পরিবার। অর্জুনের পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে উপস্থিত রয়েছেন৷

ঠিক কী ঘটেছিল কাশীপুরে?‌ বৃহস্পতিবার রাত থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না অর্জুন চৌরাসিয়াকে। শুক্রবার সকালে তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয় কাশীপুরের রেলের পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে৷ অর্জুনকে খুন করা হয়েছে। এই অভিযোগ তুলে দিনভর হাওয়া গরম করে তাঁর পরিবার এবং বিজেপি৷ কম্যান্ড হাসপাতালে ময়নাতদন্তের আবেদন জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে যায় মৃতের পরিবার৷ সেই আবেদনে সম্মতি দেয় প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ৷

কেমন করে হবে ময়নাতদন্ত?‌ কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী, দক্ষিণ ২৪ পরগণার মুখ্য বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটের নজরদারিতে গোটা ময়নাতদন্ত প্রক্রিয়া করতে হবে৷ গোটা ময়নাতদন্ত পর্ব ভিডিয়ো রেকর্ডিং করা হবে৷ এই ময়নাতদন্তের প্রক্রিয়ায় কল্যাণীর এইমস–এর বিশেষজ্ঞ এবং আর জি কর হাসপাতালের ফরেনসিক সায়েন্স বিভাগের প্রধানও উপস্থিত থাকবেন৷

বন্ধ করুন