বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > গাড়ি চালানোর সময় কাগুজে নথি আর নয়, ডিজিটাল নথি সঙ্গে থাকলেই চলবে জানাল পুলিশ
গাড়ি চালানোর সময় কাগুজে নথি আর নয়, ডিজিটাল নথি সঙ্গে থাকলেই চলবে। প্রতীকী ছবি।
গাড়ি চালানোর সময় কাগুজে নথি আর নয়, ডিজিটাল নথি সঙ্গে থাকলেই চলবে। প্রতীকী ছবি।

গাড়ি চালানোর সময় কাগুজে নথি আর নয়, ডিজিটাল নথি সঙ্গে থাকলেই চলবে জানাল পুলিশ

  • ইতিমধ্যেই, ডিজিটাল নথিকে মান্যতা দেওয়ার বিষয়ে কলকাতার সমস্ত ট্রাফিক অফিসারদের নির্দেশ দিয়েছে লালবাজার। 

সাধারণত গাড়ি চালানোর সময় ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং অন্যান্য নথি সঙ্গে রাখতে হয়। অনেক ক্ষেত্রেই গাড়িচালক বা মালিক নথি বাড়িতে ভুলে। ফলে রাস্তায় বেরিয়ে ট্রাফিক পুলিশ ধরলে সমস্যায় পড়তে হয়। সেই সমস্যার কথা মাথায় রেখেই অন্যান্য রাজ্যের মত কলকাতাতেও ডিজিটাল নথি এবং লাইসেন্সের উপর জোর দিল ট্রাফিক পুলিশ। এবার রাস্তায় বেরিয়ে ট্রাফিক আইন ভঙ্গ করলে সেক্ষেত্রে ডিজিটাল ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং অন্যান্য নথি পুলিশকে দেখালেই চলবে। ইতিমধ্যেই, ডিজিটাল নথিকে মান্যতা দেওয়ার বিষয়ে কলকাতার সমস্ত ট্রাফিক অফিসারদের নির্দেশ দিয়েছে লালবাজার।

লালবাজার সূত্রে জানা গিয়েছে, এই সমস্ত ডিজিটাল নথি রেখে দিতে হবে ডিজি লকার বা এম পরিবহন অ্যাপে। এর ফলে ট্রাফিক আইন ভাঙলে সেক্ষেত্রে পুলিশকে ডিজিটাল নথি দেখালে সমস্যা হবে না। অর্থাৎ গাড়ি চালানোর সময় কাগুজে নথি সঙ্গে বহন করাটা আর বাধ্যতামূলক রইল না। তবে আপাতত ডিজিটাল নথি বাজেয়াপ্ত করা যাবে না। এর কারণ হিসেবে লালবাজারের এক কর্তা জানিয়েছেন, এর জন্য এনআইসি ই-চালান প্রয়োজন। যা এখনও পুরোপুরি ভাবে চালু হয়নি। এই ই-চালান সম্পূর্ণভাবে চালু হয়ে গেলেই ডিজিটাল নথি বাজেয়াপ্ত করা যাবে। ফলে আপাতত পুরোপুরিভাবে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত কাগুজে নথি বহন করতে হবে চালকদের ।

অন্যদিকে, ই কোর্ট চালু হলে অ্যাপের মাধ্যমে বাড়িতে বসেই জরিমানা দেওয়া সম্ভব। কিছুদিনের মধ্যেই ই কোর্ট চালু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। লালবাজার সূত্রের খবর, ই কোর্টের সঙ্গেই এলআইসি চালানও চালু হবে। এর ফলে পুলিশের যেমন সুবিধা হবে তেমনি গাড়ি চালকরাও অতি সহজে জরিমানার টাকা দিতে পারবেন।

বন্ধ করুন