বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ লেফট করে খবরে আসা ছাড়া সমস্যার সমাধান হয় না, কটাক্ষ দিলীপের
সাংবাদিকদের মুখোমুখি দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি।

হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ লেফট করে খবরে আসা ছাড়া সমস্যার সমাধান হয় না, কটাক্ষ দিলীপের

  • আমিও মাঝেমধ্যে গ্রুপ লেফট করার কথা ভাবি। কিন্তু তাতে কি হবে!

বিজেপিতে 'হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ লেফট ' বিদ্রোহ অব্যাহত রয়েছে। দলের রাজ্য কমিটি থেকে বাদ পড়ায় প্রথম হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছেড়ে বেরিয়ে এসে বিদ্রোহ ঘোষণা করেছিলেন সায়ন্তন বসু। এরপরে একে একে বিজেপির বহু বিধায়ক নেতা হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ত্যাগ করে বেরিয়ে যান। যা নিয়ে অস্বস্তিতে রয়েছেন বিজেপি নেতৃত্ব। তবে তাতে অবশ্য খুব বেশি মাথাব্যাথা নেই বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষের।

ইকোপার্কে প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে নিজের ভঙ্গিতেই দিলীপ ঘোষ হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ লেফট প্রসঙ্গে বললেন, 'গ্রুপ লেফট করে সমস্যার সমাধান কিছুই হয় না। তাতে উল্টে সমস্যা বেড়ে যায় । আমিও মাঝেমধ্যে গ্রুপ লেফট করার কথা ভাবি। কিন্তু তাতে কি হবে! তারপরে শুধু খবর হওয়া আর সংবাদমাধ্যমের নজরে আসে ছাড়া আর কিছু হবে না। ' বরঞ্চ হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ত্যাগ না করে কোনও সমস্যা থাকলে দলের সঙ্গে কথা বলে তা মিটিয়ে নেওয়া ভালো বলে মনে করছেন দিলীপ ঘোষ।

প্রসঙ্গত, এর আগে দিলীপ ঘোষ হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ লেফট প্রসঙ্গে জানিয়েছিলেন, 'বিজেপি একটি শৃঙ্খলাবদ্ধ দল ।এখানে গ্রুপের রাজনীতি হয় না। কোনও সমস্যা থাকলে দলের অন্দরেই মিটিয়ে নেওয়া ভালো।' তবে এই দিলিপের এই মন্তব্য বিজেপি নেতাদের খুব একটা মন গলেনি। এরপরেও বেশ কয়েকজন বিজেপি নেতা হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছেড়ে বেরিয়ে গিয়েছেন। সম্প্রতি, বিজেপির মতুয়া সাংসদ শান্তনু ঠাকুর হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ত্যাগ করেছেন। এরপরেই বিজেপি শিবিরের অস্বস্তি আরও বাড়িয়ে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ লেফট করেছেন বিজেপির যুব মোর্চার শঙ্কুদেব পান্ডা। এর ফলে দলের অস্বস্তি আরও বেড়ে গিয়েছে।

তবে দলের নেতাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়া প্রসঙ্গে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি। তাঁর কটাক্ষ, 'অনেকে এদিক ওদিক ঘুরে বেড়াতে ভালোবাসে। তবে বিজেপি দল এভাবে চলে না।'

বিধানসভা নির্বাচনের পরেই বিজেপির গোষ্ঠী কোন্দল প্রকাশ্যে এসেছিল। একে একে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন বহু নেতা। তা প্রকট হয়েছে কলকাতা পুররসভা নির্বাচনের পর। এরই মধ্যে বিজেপির গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ লেফট করার ফলে আরও অস্বস্তিতে পড়েছে বিজেপি। সম্প্রতি তৃণমূলের মুখপাত্র জাগো বাংলাতেও এ নিয়ে বিজেপিকে নানাভাবে আক্রমণ করা হয়েছে।

বন্ধ করুন