বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ঢপের চপ খেয়ে খেয়ে আমাদের পেট ফুলে গেল দিদিমণি: দিলীপ ঘোষ
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

ঢপের চপ খেয়ে খেয়ে আমাদের পেট ফুলে গেল দিদিমণি: দিলীপ ঘোষ

  • মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দিলীপবাবুর প্রশ্ন, ‘দুর্গাপুজো, কালীপুজো, মেলার উদ্বোধন হয়। কারখানার উদ্বোধন করেছেন? খেলা, মেলা, লীলা দিদির দায়িত্ব।’

বিধানসভা নির্বাচনের আগে যখন রাজ্য রাজনীতির উত্তাপ ক্রমশ চড়ছে তখন কর্মসংস্থানের ইস্যুতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যয়াকে ফের বিঁধলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বৃহস্পতিবার কলকাতার বালিগঞ্জে সাংবাদিকদের সামনে এই ইস্যুতে ফের একবার রাজ্য সরকারের উদ্দেশে কটাক্ষ ছুড়ে দেন তিনি। বলেন, ঢপের চপ খেয়ে খেয়ে আমাদের পেট ফুলে গেল দিদিমণি। সঙ্গে দিলীপবাবুর কটাক্ষ, ‘২০২০ শেষ হলে করোনা আর তৃণমূল দুই মহামারীই যাবে।’

এদিন রাজ্যের মেলা আয়োজনের কর্মসূচিকে কটাক্ষ করে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘আমি নিউ টাউনে থাকি। রোজ প্রাতঃভ্রমণে বেরোই। একদিন ভাবলাম সিলিকন ভ্যালিতে যাই। গিয়ে দেখলাম সেখানে দিদিমণির কাট আউট উলটে পড়ে রয়েছে। ঘাস হয়ে রয়েছে। ছাগল চরছে। ঢপের চপ খেয়ে খেয়ে আমাদের পেট ফুলে গেল দিদিমণি। আর কবে হবে? আপনার কথা কেউ বিশ্বাস করে না’। 

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দিলীপবাবুর প্রশ্ন, ‘দুর্গাপুজো, কালীপুজো, মেলার উদ্বোধন হয়। কারখানার উদ্বোধন করেছেন? খেলা, মেলা, লীলা দিদির দায়িত্ব।’ 

পশ্চিমবঙ্গের কর্মসংস্থানের প্রশ্নে বরাবরই রাজ্য সরকারের দাবিকে নাকচ করে এসেছে বিজেপি। রাজ্য সরকারের দাবি, করোনা পরিস্থিতির মধ্যে যখন গোটা দেশে বেকারত্ব বেড়েছে তখন পশ্চিমবঙ্গে বেকারত্ব হ্রাসের হার ৪০ শতাংশ। রাজ্য সরকারের এই দাবি যে মানতে রাজি নয় বিজেপি তা ফের একবার বোঝালেন দিলীপ ঘোষ।

 

বন্ধ করুন