বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'শেষ জীবনে মুকুল রায়কে অপব্যবহার করা হচ্ছে', বেফাঁস মন্তব্য প্রসঙ্গে দিলীপ
দিলীপ ঘোষ (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
দিলীপ ঘোষ (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

'শেষ জীবনে মুকুল রায়কে অপব্যবহার করা হচ্ছে', বেফাঁস মন্তব্য প্রসঙ্গে দিলীপ

  • মুকুল রায় একজন সিনিয়র মানুষ। কিন্তু, শেষ জীবনে ওঁকে যেভাবে কষ্ট পেতে হচ্ছে, অপমান করা হচ্ছে তা ওনার বোঝা উচিত। আমার মনে হচ্ছে ওঁকে অপব্যবহার করে অপমান করা হচ্ছে।'

বোলপুরে মুকুল রায়ের বেফাঁস মন্তব্যকে ঘিরে রাজনীতিতে এখন শোরগোল পড়ে গিয়েছে। সেখানে তিনি বলেছেন, 'সারা বাংলায় পুরসভা নির্বাচনে ভারতীয় জনতা পার্টি বিপুলভাবে জয়ী হবে।' এ নিয়ে দ্বিতীয়বার বেফাঁস মন্তব্য করলেন মুকুল রায়। এখন তিনি ভুলবশত একথা বলে ফেলেছেন নাকি এটি তাঁর মস্তিষ্কপ্রসূত কোনও 'পাজল গেম' তা নিয়ে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। তারই মাঝে মুকুল রায়ের পাশে দাঁড়িয়ে জল্পনা আরও বাড়িয়ে দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

তিনি বলেন, 'মুকুল রায় একজন সিনিয়র মানুষ। কিন্তু, শেষ জীবনে ওঁকে যেভাবে কষ্ট পেতে হচ্ছে, অপমান করা হচ্ছে তা ওনার বোঝা উচিত। আমার মনে হচ্ছে ওঁকে অপব্যবহার করে অপমান করা হচ্ছে।' একইসঙ্গে মুকুল রায়ের শারীরিক অবস্থা যে একেবারেই সুস্থ নয় সে কথাও উল্লেখ করেন দিলীপ ঘোষ।

শুক্রবার বোলপুরের সভায় শুধুমাত্র 'বিজেপি সারাবাংলায় পুরসভা ভোটে জয়ী হবে' একথা বলেই থামেননি মুকুল রায়। পাশ থেকে অন্যান্য নেতারা তাঁকে ভুল ধরিয়ে দিলেও তিনি আরও সংযোজন করে বলেন, 'ভারতীয় জনতা পার্টি মানেই তৃণমূল।' মুকুল রায়ের এই মন্তব্যের পর এই দলের অন্দরেই ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। এর আগেও বেফাঁস মন্তব্য করেছিলেন মুকুল রায়। কৃষ্ণনগরে তৃণমূলের সভায় তিনি বলেছিলেন, 'ভারতীয় জনতা পার্টির পক্ষ থেকে আমি বলতে পারি তৃণমূল পর্যুদস্ত হবে।'

দ্বিতীয়বার মুকুল রায়ের এরকম বেফাঁস মন্তব্যকে ঘিরে জল্পনা আরও তুঙ্গে। এ প্রসঙ্গে তৃণমূল নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেছেন, 'মুকুল রায় শারীরিকভাবে সুস্থ নন। তিনি ভারসাম্যহীন। সে ক্ষেত্রে তিনি পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটিতে থাকতে না চাইলে দল তার বিচার করবে।' পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মন্তব্যকে ঘিরেও এখন জল্পনার পারদ আরও চড়ছে।

যদিও মুকুল রায়ের ছেলে শুভ্রাংশু রায় বাবার বেফাঁস মন্তব্যের জন্য শারীরিক অসুস্থতাকে দায়ী করেছেন। তারপরেও অবশ্য একথা মানতে চাইছে না রাজনৈতিক মহলের একাংশ। তাদের বক্তব্য, একজন বিচক্ষণ রাজনীতিবিদ হিসেবে পরিচিত মুকুল রায়। যাকে রাজনীতির চাণক্য বলা হয়। সে ক্ষেত্রে অনিচ্ছাকৃতভাবেই তাঁর এই মন্তব্য নাকি এর পিছনে মুকুল রায়ের মস্তিষ্কপ্রসূত কোনও প্ল্যান রয়েছে তা ভাবিয়ে তুলেছে রাজনৈতিক মহলের একাংশকে।

বন্ধ করুন