বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > সরকারের টাকায় দলের প্রচার, দুয়ারে দুয়ারে সরকার কর্মসূচির সমালোচনায় দিলীপ
রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি
রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

সরকারের টাকায় দলের প্রচার, দুয়ারে দুয়ারে সরকার কর্মসূচির সমালোচনায় দিলীপ

  • সোমবার বিকেলে এক সাংবাদিক বৈঠকে দিলীপবাবু বলেন, ‘উনি দলের মঞ্চ থেকে সরকারি কর্মসূচি ঘোষণা করে দেন। ওনার দলের মুখপাত্র সরকারি প্রকল্পের ঘোষণা করছেন, ওদিকে মুখ্যসচিব একই কথা বলছেন।

রাজ্য সরকারের ‘দুয়ারে দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচির সমালোচনায় সরব হলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সোমবার এক সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, সরকারের টাকা খরচ করে দলের প্রচার করতেই এই প্রকল্প। 

মঙ্গলবার থেকে রাজ্যজুড়ে শুরু হচ্ছে তৃণমূল সরকারের ‘দুয়ারে দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচি। এই কর্মসূচির অধীনে রাজ্যের প্রতিটি মানুষের কাছে সরকারি পরিষেবা পৌঁছে দেবেন প্রশাসনের কর্মীরা। রাজ্য সরকারের নির্দিষ্ট ১২টি প্রকল্প থেকে কেউ বঞ্চিত হলে তাঁকে দেওয়া হবে প্রকল্পের সুবিধা। এজন্য রাজ্যজুড়ে ৪ পর্যায়ে ২০,০০০ ক্যাম্প হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। 

সোমবার বিকেলে এক সাংবাদিক বৈঠকে দিলীপবাবু বলেন, ‘উনি দলের মঞ্চ থেকে সরকারি কর্মসূচি ঘোষণা করে দেন। ওনার দলের মুখপাত্র সরকারি প্রকল্পের ঘোষণা করছেন, ওদিকে মুখ্যসচিব একই কথা বলছেন। সরকার আর পার্টি বলে আলাদা কিছু নেই। সরকারি টাকা পার্টির টাকা হয়ে গিয়েছে এখন’।

মঙ্গলবার সকালে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘এর আগে মমতা ব্যানার্জির পার্টি - সরকার এই ধরণের অনেক প্রকল্প ঘোষণা করেছে। কিন্তু বাস্তবে মানুষ কিছু পায়নি। পার্টির লোকেরা কাটমানি পেয়েছেন। এগুলো সব স্ট্যান্ট। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্টান্ট হচ্ছে। আর কিছু না।’

বিশেষজ্ঞদের মতে, বিধানসভা নির্বাচনের আগে নিজেকে সুশাসক হিসাবে প্রতিষ্ঠা করতে তৎপর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সরকারি কল্যাণ প্রকল্পের সুবিধা সবার কাছে পৌঁছে দিয়ে মানুষের মন জয় করতে চান তিনি। ঠিক এই কৌশলেই গত বছর দিল্লির মানুষের মন জয় করেছিলেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। পশ্চিমবঙ্গে বিজেপিকে রুখতে সেই মন্ত্রেই বিশ্বাস রেখেছেন মমতা।

 

বন্ধ করুন