বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ফের শালীনতার সীমা ছাড়ালেন দিলীপ ঘোষ
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। 
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। 

ফের শালীনতার সীমা ছাড়ালেন দিলীপ ঘোষ

  • এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘জয় বাংলা বলে পশ্চিমবঙ্গকে বাংলাদেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে। দিদিমণির জয় শ্রীরাম শুনলে শরীর খারাপ হয়ে যাচ্ছে। গায়ে কীসের রক্ত আছে? 

বলতে বলতে ফের একবার মাত্রা ছাড়ালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শুক্রবার সকালে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নাম না করে ‘হারামির মতো কাজ করছেন’ বলে আক্রমণ করলেন তিনি। সঙ্গে তাঁর দাবি, যাঁরা বিজেপির ঝান্ডা খুলছে তাদের ঘাড় ধরে বিজেপিতে যোগদান করানো হবে। 

শুক্রবার সকালে দক্ষিণ ২৪ পরগনার জোকার ডায়মন্ড পার্কে চায়ে পে চর্চা কর্মসূচিতে যোগ দেন দিলীপবাবু। সেখানেই স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে শাসকদলকে আক্রমণ শুরু করেন তিনি। নাম না করে আক্রমণ শানান মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশেও। এরই মধ্যে হঠাৎ মুখ্যমন্ত্রীকে কদর্য ভাষায় আক্রমণ করেন তিনি। 

এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘জয় বাংলা বলে পশ্চিমবঙ্গকে বাংলাদেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে। দিদিমণির জয় শ্রীরাম শুনলে শরীর খারাপ হয়ে যাচ্ছে। গায়ে কীসের রক্ত আছে? লজ্জা করে না, রামের দেশে রয়েছেন আর হারামির মতো কাজ করছেন?’

বৃহস্পতিবার মেদিনীপুরে বিজেপির ব্যানার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের অভিযোগ। সেই প্রসঙ্গ তুলে এদিন তৃণমূলকেও আক্রমণ শানান তিনি বলেন, ‘যাঁরা বিজেপির ঝান্ডা খুলছেন, তাঁদের ঘাড় ধরে বিজেপিতে আনা হবে। আর জয় শ্রীরাম বলানো হবে।’

সমালোচনার মুখে পড়ে বিকেলে চাঁপদানির এক সভায় সাফাই দিতেও শোনা যায় দিলীপবাবুকে। বলেন, ‘আমার কথা অনেকের কানে লেগেছে। আমি চ্যালেঞ্জ করছি, এই কথা বলার হিম্মত কারও আছে?’

এর আগে বহুবার সমালোচিত হয়েছে দিলীপ ঘোষের শব্দচয়ন। দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দলের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হয়ে তাঁর এই সব শব্দ নতুন প্রজন্মের সামনে কোন নজির তৈরি করছে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন গুণীজনরা।

 

বন্ধ করুন