বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ডেথ অডিট কমিটির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে জনস্বার্থ মামলা দায়ের দিলীপের
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

ডেথ অডিট কমিটির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে জনস্বার্থ মামলা দায়ের দিলীপের

  • এই নিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘করোনা মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের ওপর আমাদের আর ভরসা নেই। তাই আদালতের দ্বারস্থ হতে বাধ্য হলাম।’

রাজ্য সরকারের ওপর ভরসা নেই। পশ্চিমবঙ্গে করোনার তথ্য লুকানো হচ্ছে, এই অভিযোগে এবার আদালতের দ্বারস্থ হল বিজেপি। রাজ্য সরকারের তৈরি করা ডেথ অডিট কমিটির বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টে মামলাটি দায়ের করেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আর তার পরই ওই কমিটি আর অডিট করবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে নবান্ন।

আবেদনে একাধিক দাবি জানিয়েছেন দিলীপবাবু

১. WHO ও ICMR-এর নির্দেশ মেনে পশ্চিমবঙ্গে করোনার চিকিৎসা ও করোনা রোগীর সৎকার করতে হবে।

২. করোনা তথ্য প্রকাশে স্বচ্ছ্বতা আনতে হবে রাজ্য সরকারকে।

৩. করোনায় মৃতের ডেথ সার্টিফিকেটে মৃত্যুর আসল করণ লিখতে হবে।

. পুলিশকর্মীদের সংক্রমণ এড়াতে স্বাস্থ্যকর্মীর মতো পিপিই দিতে হবে।

৪. কোনও পুলিশকর্মী মারা গেলে তাঁকে বিমার আওতায় আনতে হবে।

৫. রাজ্যের করোনা হাসপাতালগুলিতে মোবাইল ফোন ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে হবে।

এই নিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘করোনা মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের ওপর আমাদের আর ভরসা নেই। তাই আদালতের দ্বারস্থ হতে বাধ্য হলাম।’

রাজ্যে করোনা সংক্রমণ ছড়ানোর সপ্তাহখানেক পর থেকেই শুরু হয়েছে তৃণমূল-বিজেপি বাগযুদ্ধ। বিজেপির দাবি, করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে প্রকৃত পদক্ষেপ করার বদলে নিজের প্রচার করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সঠিক তথ্য প্রকাশ করার বদলে তথ্য গোপন করছেন তিনি। উলটে মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, সংকটকালে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নামে নোংরা রাজনীতির খেলায় নেমেছে বিজেপি।



বন্ধ করুন