বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘আঞ্চলিক দলের নেত্রী কী করে UPA চেয়ারপার্সন হন সেটাও দেখার’
দিলীপ ঘোষ (PTI)
দিলীপ ঘোষ (PTI)

‘আঞ্চলিক দলের নেত্রী কী করে UPA চেয়ারপার্সন হন সেটাও দেখার’

  • সঙ্গে তাঁর প্রশ্ন, ‘একটা আঞ্চলিক দলের নেতা কী করে সর্বভারতীয় UPA-র চেয়ারম্যান হয় সেটাও একটা দেখার বিষয় রয়েছে। বিচিত্র ব্যাপার হচ্ছে। মেদিনীপুর বুঝিয়ে দিল বাংলা নিজের মেয়েকে চায় না।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের UPA-র চেয়ারপার্সন হওয়ার জল্পনাকে কটাক্ষ করলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। মঙ্গলবার এক সাংবাদিক বৈঠকে দিলীপবাবু কটাক্ষ করে বলেন, ‘একটা আঞ্চলিক দলের নেত্রী কী করে সর্বভারতীয় জোটের চেয়ারম্যান হন সেটা দেখার ব্যাপার।’

গত বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের বিপুল জয়ের পর থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সর্বভারতী নেত্রী হিসাবে তুলে ধরতে উঠেপড়ে লেগেছে তাঁর দল। ইন্টারনেটে তাঁর সমর্থনে চলছে ব্যাপক প্রচার। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রধানমন্ত্রী দেখতে চাই বলে দিনকয়েক আগে প্রচারের ঝড় ওঠে সোশ্যাল সাইটে। এরই মধ্যে জল্পনা মাথা চাড়া দেয়, তবে কি UPA চেয়ারপার্সন হতে চলেছেন মমতা?

মঙ্গলবার বিজেপির হেস্টিংস কার্যালয়ে দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এই নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ‘লোকসভা নির্বাচনের আগে দেশের বিভিন্ন বিরোধী দলের নেতাদের মুখ্যমন্ত্রী বাংলায় ডেকেছিলেন। তাদের নেমন্তন্ন করে খাইয়েছিলেন। তারা বলেছিলেন, দিদি আপনার মতো নেতা হয় না। কিন্তু তাঁরা বাড়ি গিয়ে সব ভুলে গেছেন। ফলে জানি না আবার ডেকে মাছ – ভাত খাইয়ে UPA-র চেয়ারম্যান ঘোষণা করে দেবেন কি না।  লোকসভা নির্বাচনের পর থেকে সেই দলগুলির অস্তিত্বই বিপন্ন। পশ্চিমবঙ্গে তো ২টি দল উঠেই গিয়েছে’। 

সঙ্গে তাঁর প্রশ্ন, ‘একটা আঞ্চলিক দলের নেতা কী করে সর্বভারতীয় UPA-র চেয়ারম্যান হয় সেটাও একটা দেখার বিষয় রয়েছে। বিচিত্র ব্যাপার হচ্ছে। মেদিনীপুর বুঝিয়ে দিল বাংলা নিজের মেয়েকে চায় না। আর যিনি হারিয়ে দিয়েছেন তাঁর মুখ দেখতে চান না’।

বিধানসভা নির্বাচনে জয়ের পর দেশে বিজেপি বিরোধিতার অন্যতম মুখ হয়ে উঠেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি বিরোধী দলগুলি তাঁর সাফল্যে আশার আলো দেখছে। কিন্তু তাদের মধ্যে কতজন নিজেদের রাজ্যপাট মমতার হাতে তুলে দিতে রাজি থাকবেন, সে কোটি টাকার প্রশ্ন।

 

বন্ধ করুন