বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > তৃণমূলের পর প্রশাসন, মর্নিং ওয়াকে বেরিয়ে ফের বাধার মুখে দিলীপ ঘোষ
রবিবার সকালে ইকো পার্কে দিলীপ ঘোষ

তৃণমূলের পর প্রশাসন, মর্নিং ওয়াকে বেরিয়ে ফের বাধার মুখে দিলীপ ঘোষ

  • এদিন দলীয় সমর্থকদের নিয়ে ইকো পার্কের সামনে পৌঁছতেই দিলীপবাবুকে বাধা দেন নিরাপত্তারক্ষীরা। তাঁরা জানান ইকো পার্কে ঢুকতে দেওয়া হবে না তাঁদের।

তৃণমূলের পর এবার প্রাতর্ভ্রমণে বেরিয়ে প্রশাসনের বাধার মুখে বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শুক্রবার সকালে তাঁকে নিউ টাউনের ইকো পার্কে ঢুকতে বাধা দেয় পার্ক কর্তৃপক্ষ। এদিন ইকো পার্কে চায়ে পে চর্চা কর্মসূচি আয়োজনের পরিকল্পনা ছিল দিলীপবাবুর। ইকো পার্ক কর্তৃপক্ষের দাবি পার্কের ভিতরে কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচি আয়োজন করতে দেওয়া হয় না। 

মাঝে মাঝেই ইকোপার্কে মর্নিং ওয়াক করতে যান দিলীপবাবু। সঙ্গে থাকেন তাঁর নিরাপত্তারক্ষী ও দলের সমর্থকরা। এতদিন তাঁর অনুগামীদের নিয়ে ঢুকতে কোনও সমস্যা হয়নি। যোগ দিবসে এই ইকো পার্কেই দলীয় কর্মীদের সঙ্গে যোগাসন করেছিলেন তিনি। কিন্তু শুক্রবার পড়তে হল বাধার মুখে। 

এদিন দলীয় সমর্থকদের নিয়ে ইকো পার্কের সামনে পৌঁছতেই দিলীপবাবুকে বাধা দেন নিরাপত্তারক্ষীরা। তাঁরা জানান ইকো পার্কে ঢুকতে দেওয়া হবে না তাঁদের। একথা শুনে উত্তেজিত হয়ে ওঠেন দিলীপ ঘোষের অনুগামীরা। দিলীপবাবু উত্তেজনা প্রশমণ করেন। 

পার্ক কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়, ইকো পার্কের ভিতর কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচির আয়োজন করতে দেওয়া হয় না। তাই ঢুকতে দেওয়া হয়নি দিলীপবাবুকে। প্রশ্ন উঠছে, তাহলে দিলীপবাবু যোগ দিবসের অনুষ্ঠান করলেন কী করে?

বলে রাখি, গত বুধবার এই নিউ টাউনেই জোতভীমে তৃণমূল কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত হন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সকালে চায়ে পে চর্চা অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে তৃণমূলের হামলার মুখে পড়েন তিনি। ভাঙচুর করা হয় তাঁর গাড়ি। মারধর করা হয় নিরাপত্তারক্ষীদের। 

 

বন্ধ করুন