বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'তাও রাজ্য বলে, কেন্দ্র ভ্যাকসিন দেয় না...', ১০০ কোটি টিকাকরণের মুখে তোপ দিলীপের
বিজেপির সর্বভারতীয় সহসভাপতি দিলীপ ঘোষ।
বিজেপির সর্বভারতীয় সহসভাপতি দিলীপ ঘোষ।

'তাও রাজ্য বলে, কেন্দ্র ভ্যাকসিন দেয় না...', ১০০ কোটি টিকাকরণের মুখে তোপ দিলীপের

  • আজকেই ১০০ কোটি টিকাকরণের গণ্ডি ছুঁতে পারে ভারত। এই আবহে রাজ্য সরকারকে টিকাকরণ নিয়ে তোপ দাগলেন দিলীপ ঘোষ।

আজকেই ১০০ কোটি টিকাকরণের গণ্ডি ছুঁতে পারে ভারত। ৯ মাস আগে দেশে টিকাকরণ শুরু হয়েছিল। এরপর ধাপে ধাপে এগিয়েছে টিকাকরণ। মাঝের সময়ে টিকার ঘাটতির অভিযোগ উঠেছিল। রাজ্যগুলিকে টিকা কেনার অধিকার দিয়ে তা পরে আবার ফিরিয়ে নেয় কেন্দ্র। কেন্দ্র টিকার দায়িত্ব পুরোপুরি নিজের কাঁধে নেওয়ার পরই গতি বেড়েছে টিকাকরণের। আর এই আবহে রাজ্যের তৃণমূল সরকারকে বিঁধতে ছাড়লেন না বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

এদিন ইকোপার্কে মর্নিং ওয়াকে গিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দিলীপ ঘোষ মন্তব্য করেন, 'এর পরেও রাজ্য বলে তারা টিকা পায় না।' দিলীপ ঘোষ বলেন, '১০০ কোটি টিকাকরণের এই গণ্ডি পার করা আমাদের কাছে গৌরবের মুহূর্ত। ভারতের মতো একটা উন্নয়নশীল দেশ বাকি বিশ্বকে পথ দেখাচ্ছে। অনেক উন্নত দেশ ভারতের থেকে পিছিয়ে গিয়েছে। অন্যান্য দেশে একটা ভ্যাকসিন হচ্ছে, আমাদের দেশে দুটো করে ভ্যাকসিন হচ্ছে। দেশের একশো কোটি লোককে দেওয়ার পাশাপাশি মানবতার খাতিরে আরও পঞ্চাশটা গরিব দেশের মানুষকে ভ্যাকসিন দিচ্ছি আমরা।'

দিলীপবাবু আরও বলেন, 'নরেন্দ্র মোদীর মতো নেতৃত্ব আজ দেশে আছে বলে ১০০ কোটির টিকাকরণের এই গণ্ডি পার করা সম্ভব হচ্ছে। যাঁরা টিকাকরণের কাজের সঙ্গে যুক্ত আছেন, স্বাস্থ্য কর্মী, ডাক্তার, যাঁরা গবেষণা করছেন, সমস্ত মানুষের এর কৃতিত্ব প্রাপ্য। সবাইকে ধন্যবাদ জানানো উচিত। এর পরেও রাজ্য সরকার বলে নাকি কেন্দ্র তাদের ভ্যাকসিন দেয় না। এগুলো হীনমন্যতা, অযোগ্যতা আর কেবল কুৎসার রাজনীতি। সারা দেশের মানুষ আজ খুশি। আমি অন্যান্য রাজ্যেও গিয়েছি। দিল্লিতে আমি নিজে একটা ভ্যাকসিন নিয়েছি। কোথাও কোনও ঝগড়াঝাটি নেই। সাধারণ মানুষ আসছেন, ভ্যাকসিন নিচ্ছেন। কিন্তু এখানে কোনও নিয়ম নেই। মানুষকে ভ্যাকসিন নিতে গিয়ে লাঠি খেতে হচ্ছে, মারা যাচ্ছে। এর থেকে দুর্ভাগ্যের কী আছে?'

বন্ধ করুন