বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ফেসবুক লাইভে বিজেপি নেতৃত্বের বিরুদ্ধে সরব অনুপম, সমর্থন দিলীপের
দিলীপ ঘোষ। নিজস্ব ছবি।

ফেসবুক লাইভে বিজেপি নেতৃত্বের বিরুদ্ধে সরব অনুপম, সমর্থন দিলীপের

  • ‘উনি কেন্দ্রীয় নেতা। এখানকার নেতাদের সাজেশন দেওয়ার কাজ ওনার। একইসঙ্গে, কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে খবর দেওয়াটা ওনার কাজ।’

আসানসোলের মতো কেন্দ্রে ভরাডুবির পর ক্ষোভের সুর শোনা গিয়েছে বিজেপির একাংশের নেতাদের মধ্যে। দলত্যাগ করেছেন অনেকেই। তারই মধ্যে রবিবার ফেসবুক লাইভে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন দলের নেতা অনুপম হাজরা। তাঁর বক্তব্য, বিজেপিতে পুরনোদের থেকে নতুনদের বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। দলের পুরোনো কর্মীদের ঠিকমতো কাজে লাগানো হচ্ছে না। যার ফলস্বরূপ দলত্যাগ অব্যাহত রয়েছে। অনুপমের মন্তব্যকে একপ্রকার সমর্থন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

দিলীপ বলেন, ‘উনি কেন্দ্রীয় নেতা। এখানকার নেতাদের সাজেশন দেওয়ার কাজ ওনার। একইসঙ্গে, কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে খবর দেওয়াটা ওনার কাজ।’ রবিবার ফেসবুক লাইভে অনুপম শুধু এসব বলেই ক্ষান্ত হননি, তিনি আরও বলেছিলেন, ‘আমার মতো কয়েকজন আছি, যারা দলের খারাপ সময়ে ছিলাম। কিন্তু আচমকা কিছু লোক এসে ক্ষীর খেয়ে চলে গেল। বিধানসভা নির্বাচনের সময় আমরা ছিলাম দর্শক।’ এ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘লোকসভা, বিধানসভার আগে দলে এসেছিলেন অনেকেই। তাদের মধ্যে অনেকেই বড় নেতা। তারা ভেবেছিলেন বিজেপি জিতবে তাই বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু, সরকারে আসেনি পার্টি। সেই জন্য অনেকে কনফিউজড, একে অপরকে দোষ দিচ্ছেন।’ এই কঠিনতম পরিস্থিতিতে লড়াই চালিয়ে যাওয়াটা আসল কাজ বলে মনে করেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর মতে, প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যে অন্যের উপর দোষ চাপিয়ে দিয়ে পালিয়ে যাওয়া প্রকৃত নেতাদের কাজ নয়, তাদের কাজ হল লড়াই চালিয়ে যাওয়া।

অন্যদিকে, বিজেপির সাংগঠনিক সভাপতি অমিতাভ চক্রবর্তীকে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের তলব প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন,‘দুই জায়গায় উপনির্বাচন হয়ে গেল। আশানুরূপ আমরা ভালো ফল করতে পারিনি। কেন এরকম হয়েছে কেন্দ্রের কাছে সে নিয়ে ফিডব্যাক থাকা প্রয়োজন।’

বন্ধ করুন