বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > হাসপাতালের অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থাকে খতিয়ে দেখার নির্দেশ, গুজরাটের ঘটনায় শিক্ষা
রাজকোটের হাসপাতালে আগুন লাগলে এক কোভিড রোগীকে এভাবেই উদ্ধার করেছিলেন স্বাস্থ্যকর্মীরা  (ফাইল ছবি)
রাজকোটের হাসপাতালে আগুন লাগলে এক কোভিড রোগীকে এভাবেই উদ্ধার করেছিলেন স্বাস্থ্যকর্মীরা  (ফাইল ছবি)

হাসপাতালের অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থাকে খতিয়ে দেখার নির্দেশ, গুজরাটের ঘটনায় শিক্ষা

  • গুজরাট ও মহারাষ্ট্রের কোভিড হাসপাতালের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এবার নড়েচড়ে বসেছে এই রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর।

কালো ধোঁয়ায় ভরে গিয়েছে চারদিক। একে একে করে বের করে আনা হচ্ছে রোগীদের। দমবন্ধ হয়েও মৃত্যু হয় কয়েকজনের। গুজরাট ও মহারাষ্ট্রের কোভিড হাসপাতালের এই মর্মান্তিক ছবি দেখে শিউরে উঠেছিল গোটা দেশ। এই ছবি দেখে অনেকেরই মনে ফিরে এসেছিল সেই কলকাতার আমরির ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের স্মৃতি। এবার সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে এই রাজ্যের কোনও হাসপাতালে না হয় সেটাই নিশ্চিত করতে চাইছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। সেকারণে করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই রাজ্যের সরকারি হাসপাতালগুলিতে অগ্নিনির্বাপন ব্যবস্থাকে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। 

স্বাস্থ্য দফতরের এক পদস্থ আধিকারিক বলেন, সরকারি হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। সেক্ষেত্রে হাসাপাতালগুলিতে অগ্নিনির্বাপন ব্যবস্থাকে রিভিউ করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রসঙ্গত, এপ্রিল মাসে মহারাষ্ট্রের পালঘর জেলাতে কোভিড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ১৫জনের মৃত্যু হয়েছিল। গুজরাটের একটি হাসপাতালেও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ১৯জনের মৃত্যু হয়েছিল চলতি মাসে। সেই ঘটনার পরই কার্যত নড়েচড়ে বসেছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। রাজ্যের সমস্ত মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের অগ্নিনির্বাপন ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানোর জন্য অর্থের অনুমোদন করা হয়েছে। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, সমস্ত মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের প্রধানদের বলা হয়েছে গোটা ব্যবস্থাকে খতিয়ে দেখার জন্য একজন অ্যাসিস্ট্যান্ট সুপারিন্টেডেন্টকে দায়িত্ব দিতে হবে। জেলা হাসপাতালের অগ্নিনির্বাপন ব্যবস্থাকে খতিয়ে দেখার জন্য জেলার মুখ্যস্বাস্থ্য আধিকারিককে বলা হয়েছে। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের অনুমোদনের জন্য অপেক্ষা না করেই প্রতিক্ষেত্রে অন্তত ২৫ লক্ষ টাকা খরচ করা যেতে পারে বলেও বলা হয়েছে। 

 

বন্ধ করুন