বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আমার সঙ্গে শুভেন্দুবাবুকে জড়াবেন না, প্রচারের দরকার নেই:‌ পোস্টার বিতর্কে রাজীব
রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও শুভেন্দু অধিকারী। ছবি সৌজন্য : ফেসবুক
রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও শুভেন্দু অধিকারী। ছবি সৌজন্য : ফেসবুক

আমার সঙ্গে শুভেন্দুবাবুকে জড়াবেন না, প্রচারের দরকার নেই:‌ পোস্টার বিতর্কে রাজীব

  • এদিন এই পোস্টার–রাজনীতির তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘‌আমার এ ধরণের প্রচারের কোনও প্রয়োজন নেই। কারা এ সব পোস্টার, ফ্লেক্স লাগাচ্ছে জানি না। আমি এগুলোকে সমর্থনও করি না।’‌

শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে তাঁর নাম না জড়ানোর আবেদন জানালেন তৃণমূলের আর এক ‘‌বেসুরো’‌ মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। সম্প্রতি একাধিক অরাজনৈতিক মঞ্চ থেকে দলের প্রতি ক্ষোভ উগরে দিতে দেখা গিয়েছে বনমন্ত্রী রাজীবকে। ওদিকে, সম্প্রতি মন্ত্রিত্ব ছেড়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। তাই ‘‌বেসুরো’‌ রাজীবের গোঁসা সামাল দিতে আর দেরি করতে চায়নি রাজ্যের শাসকদল। 

রবিবার নাকতলায় তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে হাজির হন তৃণমূলের ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোর। এদিন প্রায় দেড়ঘণ্টা ধরে রাজীবের সঙ্গে আলোচনা করেন তাঁরা। বৈঠক শেষে এদিন শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে তাঁর নাম না জড়ানোর আবেদন জানিয়েছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

কয়েকদিন ধরেই রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থনে বিভিন্ন পোস্টার, ব্যানার দেখা যাচ্ছে। যদিও তাতে তৃণমূল বা কোনও দলেরই কোনও প্রতীক নেই। ঠিক একই কায়দায় পোস্টার পড়েছে শুভেন্দু অধিকারীর নামেও। এর থেকে এক ধাপ এগিয়ে শনিবার হাওড়ার রামরাজাতলায় একই পোস্টারে শুভেন্দু ও রাজীবকে দেখা গিয়েছে। আর তাতে লেখা, ‘‌আমরা দাদার অনুগামী। এগিয়ে চল। পাশে আছি।’‌

এদিন এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় পরিষ্কার জানান, ‘‌দয়া করে আমার সঙ্গে শুভেন্দুবাবুকে জড়াবেন না। শুভেন্দুবাবুর ব্যাপারটিও ব্যক্তিগত। রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যাপারটিও ব্যক্তিগত। দলে কারও ক্ষোভ থাকতেই পারে। কারও আবার বেশি সন্তুষ্টি থাকতে পারে। আলোচনার মাধ্যমেই সমস্যা মিটবে।’‌

এর পাশাপাশি রবিবার নিজের কেন্দ্রে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থনে পোস্টার পড়েছে। এদিন হাওড়ার ডোমজুড়ে নিশ্চিন্দা থানা এলাকার বিভিন্ন জায়গায় বনমন্ত্রীর ছবি দেওয়া পোস্টার দেখা যায়। পোস্টারের নীচে লেখা ‘প্রচারে— আমরা রাজীব পরিবার’‌। কোনও পোস্টারে লেখা, ‘‌অসহায় নিপীড়িত মানুষের শক্তি— রাজীবদার মতো ব্যক্তি’‌, আবার কোনওটাতে লেখা, ‘‌স্বচ্ছ ভাবমূর্তির প্রতীক রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় জিন্দাবাদ’‌।

একইসঙ্গে রাজীবের সমর্থনে পোস্টার পড়েছে উত্তরবঙ্গেও। এদিন উত্তর দিনাজপুরের কালিয়াগঞ্জে বিভিন্ন এলাকায় দেখা গিয়েছে এমন পোস্টার। এদিন এই পোস্টার–রাজনীতির তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘‌আমার এ ধরণের প্রচারের কোনও প্রয়োজন নেই। কারা এ সব পোস্টার, ফ্লেক্স লাগাচ্ছে জানি না। আমি এগুলোকে সমর্থনও করি না।’‌

বন্ধ করুন