ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

এবার করোনা আক্রান্ত ন্যাশনাল মেডিক্যালের চিকিৎসক, কোয়ারেন্টাইনে গেলেন ১০ জন

  • বারাসতের বাসিন্দা ওই পোস্ট গ্রাজুয়েট ট্রেনিকে গত ১২ এপ্রিল এমআর বাঙুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট এলে দেখা যায় সংক্রমণ রয়েছে তাঁর।

বুধবার আরও এক চিকিৎসকের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলল কলকাতায়। ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজের ওই চিকিৎসককে এমআর বাঙুর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। সঙ্গে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে হাসপাতালের ১০ জন চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীকে।

বারাসতের বাসিন্দা ওই পোস্ট গ্রাজুয়েট ট্রেনিকে গত ১২ এপ্রিল এমআর বাঙুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট এলে দেখা যায় সংক্রমণ রয়েছে তাঁর।

এই ঘটনার পর রাজ্যে পর্যাপ্ত পরিমাণে করোনা পরীক্ষা হচ্ছে না বলে অভিযোগ তুলেছেন জুনিয়র ডাক্তাররা। তাদের দাবি, হাসপাতালের কোনও রোগীর থেকেই সংক্রমিত হয়েছেন ওই চিকিৎসক। সেক্ষেত্রে আরও রোগী ও চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারেন বলে মনে করছেন তাঁরা। সেক্ষেত্রে হাসপাতালের মেল মেডিসিন ওয়ার্ড বন্ধ করে দেওয়া উচিত বলে মত তাঁদের।

চিকিৎসকের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর মেলার পর ১০ জনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে বলে খবর। সঙ্গে আরও কারা ওই চিকিৎসকের সংস্পর্শে এসেছিলেন তা জানার চেষ্টা চলছে। ওই বিভাগের রোগীদেরও আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে।

মঙ্গলবার চিকিৎসকদের সংগঠন ওয়েস্ট বেঙ্গল ডক্টরস ফোরামের তরফে দাবি করা হয়, করোনা পরীক্ষার প্রক্রিয়া অহেতুক জটিল করে তুলে পরীক্ষার গতি কমাতে চাইছে রাজ্য প্রশাসন। এর জেরে হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ক্রমে বাড়ছে।



বন্ধ করুন