বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Tapas Roy: তৃণমূল বিধায়ক তাপস রায় কি রাজনীতি থেকে অবসর চাইছেন? জল্পনা তুঙ্গে
তৃণমূল বিধায়ক তাপস রায়।

Tapas Roy: তৃণমূল বিধায়ক তাপস রায় কি রাজনীতি থেকে অবসর চাইছেন? জল্পনা তুঙ্গে

  • তিনি বলেছেন, ‘রাজনীতিতে বয়স একটা ফ্যাক্টর, শরীর একটা ফ্যাক্টর। শরীর সঙ্গ না দিলে পড়ে থাকার কোনও মানে হয় না। সব দলেরই উচিত বয়সসীমা বেঁধে দেওয়া। নিজেকেও রেহাই দেওয়া উচিত। দল বলার আগেই আমাদেরও রেহাই দেওয়া উচিত। আমি কারও নাম করছি না। আমি সাধারণ কথাই বলছি। এতে দলেরই ভালো।’

তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তথা বিধায়ক তাপস রায় কি রাজনীতি থেকে অবসর নিতে চলেছেন? তাই নিয়ে এখন জল্পনা তুঙ্গে। দুদিন আগেই তিনি মন্তব্য করেছিলেন, রাজনীতিতে সব দলেরই উচিত বয়সসীমা বেঁধে দেওয়া। তার বক্তব্য একটি নির্দিষ্ট বয়সের পর রাজনীতি ছেড়ে নতুন প্রজন্মকে সুযোগ দেওয়া উচিত। তার এই মন্তব্যের পরেই এখন জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

তিনি বলেছেন, ‘রাজনীতিতে বয়স একটা ফ্যাক্টর, শরীর একটা ফ্যাক্টর। শরীর সঙ্গ না দিলে পড়ে থাকার কোনও মানে হয় না। সব দলেরই উচিত বয়সসীমা বেঁধে দেওয়া। নিজেকেও রেহাই দেওয়া উচিত। দল বলার আগেই আমাদেরও রেহাই দেওয়া উচিত। আমি কারও নাম করছি না। আমি সাধারণ কথাই বলছি। এতে দলেরই ভালো।’তার এই মন্তব্যকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে জোর জল্পনা। তিনি কি ব্যক্তিগত অভিমান থেকে একথা বলেছেন নাকি রাজনীতি থেকে অবসর চেয়ে এ কথা বলেছেন তাই নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

যদিও তাপস রায় তার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে বলেন, ‘আমি যে কথা বলেছি সেটা আমার ব্যক্তিগত মতামত। আমি মনে করি রাজনীতিতে আপার এজ লিমিট থাকা উচিত। কারণ আমরা যদি জায়গা ধরে রাখি তাহলে নতুন জেনারেশন সামনে আসবে কীভাবে?’ একইসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘আমি দলের অস্বস্তির কারণ নয়। জলন্ত প্রাণ ছিলাম, আছি, থাকব।’ তিনি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘অভিষেকসহ অনেকেই রাজনীতিতে বয়সের কথা বলছেন। তবে আমি দেড় বছর ধরে একথা বলে আসছি এটা নতুন কিছু নয়।’

 

বন্ধ করুন