বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > পুরোপুরি চালু হচ্ছে দুয়ারে রেশন প্রকল্প, আগামী ১৬ নভেম্বর মিলবে গোটা রাজ্যে
দুয়ারে রেশন প্রকল্প (ছবিটি প্রতীকী, রাজ কে রাজ/হিন্দুস্তান টাইমস)
দুয়ারে রেশন প্রকল্প (ছবিটি প্রতীকী, রাজ কে রাজ/হিন্দুস্তান টাইমস)

পুরোপুরি চালু হচ্ছে দুয়ারে রেশন প্রকল্প, আগামী ১৬ নভেম্বর মিলবে গোটা রাজ্যে

  • সেপ্টেম্বর মাসেই রাজ্যে পরীক্ষামূলক দুয়ারে রেশন চালু করেছিল রাজ্য সরকার।

আগামী ১৬ নভেম্বর রাজ্যে পুরোপুরি দুয়ারে রেশন প্রকল্প চালু হয়ে যাবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে এই কথা জানিয়েছেন। সেপ্টেম্বর মাসেই রাজ্যে পরীক্ষামূলক দুয়ারে রেশন চালু করেছিল রাজ্য সরকার। সম্প্রতি এই নিয়ে সরকারিভাবে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশও করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌আমরা যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম তার সবই চালু করেছি। ১৬ তারিখ থেকে দুয়ারে রেশন চালু হয়ে যাবে। স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড, কৃষকবন্ধু প্রকল্প, লক্ষ্মীর ভাণ্ডারও চালু করেছি।’‌

খাদ্য দফতর সূত্রে খবর, রেশন গ্রাহকদের বাড়িতে খাদ্যশস্য পৌঁছে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি আগেই দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তাই ডিলারদের উৎসাহ দিতে বৈঠক করা হয়েছে। ডিলারদের অতিরিক্ত কমিশনের দাবি মেনে নিয়েছে রাজ্য। তাই অতিরিক্ত কমিশন দেওয়ার কথা জানিয়ে ইতিমধ্যেই আদেশনামা প্রকাশ করা হয়েছে। তাতে ফল মিলবে বলে মনে করা হচ্ছে।

অক্টোবর মাসে ৫০ শতাংশ ডিলারকে এই প্রকল্পের আওতায় আনা হয়। তাঁরা আজ, মঙ্গলবার দুয়ারে রেশন প্রকল্পে অংশ নিতে শুরু করবেন। দুয়ারে রেশনের সামগ্রী বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার জন্য তিন–চার চাকার গাড়ি কিনতে ডিলারদের ঝণ দেওয়া হবে। এমনকী গাড়ির দামের ২০ শতাংশ বা সর্বাধিক ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ভর্তুকি মিলবে বলে খাদ্য দফতর জানিয়েছে।

আর বুধবার খাদ্যমন্ত্রী রথীন ঘোষের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন জয়েন্ট ফোরাম ফর ওয়েস্টবেঙ্গল রেশন ডিলারসের সদস্যরা। তবে তাঁরা এরটি চিঠি দিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রীকে। সেই চিঠিতে বিকল্প প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। বিকল্প প্রস্তাব হিসাবে বলা হয়েছে, সমীক্ষা চালিয়ে একান্ত প্রয়োজন আছে এমন গ্রাহকদের বাড়িতেই খাদ্য–সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া যেতে পারে।

বন্ধ করুন