বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > রাজ্যের সব স্বাস্থ্যকর্মী ও চিকিৎসকের ছুটি বাতিল, করোনা মোকাবিলায় পদক্ষেপ
করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করছেন স্বাস্থ্যকর্মী। ছবি সৌজন্য–হিন্দুস্তান টাইমস (HT_PRINT)
করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করছেন স্বাস্থ্যকর্মী। ছবি সৌজন্য–হিন্দুস্তান টাইমস (HT_PRINT)

রাজ্যের সব স্বাস্থ্যকর্মী ও চিকিৎসকের ছুটি বাতিল, করোনা মোকাবিলায় পদক্ষেপ

  • যদিও চলতি বছরে মৃতের সংখ্যা ফের রেকর্ড স্পর্শ করল।

দৈনিক সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় কপালে ভাঁজ পড়েছে স্বাস্থ্য কর্তাদের। এদিন জারি হওয়া স্বাস্থ্যদপ্তরের বুলেটিনে জানানো হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণ বেড়েছে সাতজনের মধ্যে। এদিন দৈনিক সংক্রমণ ছিল ৮৪২৬। যদিও চলতি বছরে মৃতের সংখ্যা ফের রেকর্ড স্পর্শ করল। ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণে মারা গিয়েছেন ৩৮ জন।

স্বাস্থ্য দেওয়া বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার কবলে পড়েছেন ৮,৪২৬ জন। যার মধ্যে শহর কলকাতায় একদিনে আক্রান্ত ২,২১১ জন। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। একদিনে সেখানে ১,৮০১ জনের শরীরে মারণ ভাইরাসের থাবা বসিয়েছে। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় একদিনে সংক্রমিতের সংখ্যা ৫২২। হাওড়া–হুগলিতে একদিনে আক্রান্ত যথাক্রমে ৫২৭ ও ৪৪০ জন। দৈনিক সংক্রমণ বেড়েছে মালদহে। একদিনে সেখানে আক্রান্ত ৪৩৫ জন। রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হল ৬ লক্ষ ৬৮ হাজার ৩৫৩ জন।

এই পরিস্থিতির মোকাবিলায় রাজ্যের সব স্বাস্থ্যকর্মী ও চিকিৎসকের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। কলসেন্টার এবং সংশ্লিষ্ট হাসপাতালের ইমার্জেন্সি মেডিক্যাল অফিসারের অনুমতি ছাড়া সরাসরি কোনও কোভিড হাসপাতালে রোগী ভর্তি করা হবে না বলে জানানো হয়েছে সেখানে। মৃদু উপসর্গ থাকা রোগীদের ভিড় হাসপাতালে এড়াতেই এই সিদ্ধান্ত। দুই স্বাস্থ্য অধিকর্তা রাজ্যের সবক’টি জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিককে এই কথা জানিয়েছেন। চিকিৎসক সংগঠন ওয়েস্ট বেঙ্গল ডক্টর্স ফোরাম মাস্ক না পরলে জরিমানা চালুর করার দাবি আরও জোরালো করে এক প্রেস বিবৃতি জারি করেছে। এছাড়াও তারা মহকুমা হাসপাতাল পর্যন্ত ন্যূনতম ৫০ শয্যার করোনা ব্লক চালুর অনুরোধও জানিয়েছে সরকারের কাছে। এদিন দুই লক্ষাধিক মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে।

বন্ধ করুন