বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অর্পিতার ফ্ল্যাটই ছিল চাকরির দোকান, ৮ - ১০ লক্ষে বিক্রি হয়েছে প্রতিটি নিয়োগ
পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও উদ্ধার হওয়া টাকার পাহাড়।

অর্পিতার ফ্ল্যাটই ছিল চাকরির দোকান, ৮ - ১০ লক্ষে বিক্রি হয়েছে প্রতিটি নিয়োগ

  • গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন, অর্পিতার ফ্ল্যাটে পার্থবাবু তো ঘন ঘন যাতায়াত করতেনই। সঙ্গে যাতায়াত ছিল আরও বেশ কয়েকজন তৃণমূল নেতার।

SSC দুর্নীতির তদন্তে পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ফ্ল্যাট থেকে ২১ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা উদ্ধারের পর প্রকাশ্যে আসছে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। ইডি সূত্রের খবর, ওই ফ্ল্যাটেই চলত চাকরি কেনা বেচার কারবার। বিভিন্ন জায়গা থেকে চাকরির দেওয়ার জন্য অগ্রিম টাকা তুলে অর্পিতার ফ্ল্যাটে পৌঁছে দিতেন তৃণমূল নেতারা। এর পর তৈরি হত নিয়োগের তালিকা। নিয়োগপত্র হাতে পেলে দিতে হত বাকি টাকা। ইডি সূত্রের খবর, এক একটি চাকরি বিক্রি হত ৮ – ১০ লক্ষ টাকায়। বাকি টাকা নিতেন স্থানীয় তৃণমূল নেতা ও দালালরা।

গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন, অর্পিতার ফ্ল্যাটে পার্থবাবু তো ঘন ঘন যাতায়াত করতেনই। সঙ্গে যাতায়াত ছিল আরও বেশ কয়েকজন তৃণমূল নেতার। তারা কারা জানতে আবাসনের সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করছেন ইডির গোয়েন্দারা। গোয়েন্দাদের আরও দাবি, অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে যাদের চাকরি দিতে হবে সেই তালিকা পেয়েছেন তারা।

গোয়েন্দারা জানাচ্ছেন, ওই আবাসনে আরও অনেক টাকা ছিল। সেই টাকা হাওয়ালার মাধ্যমে সরিয়ে ফেলেছেন অভিযুক্তরা। সেই টাকা কোথায় গেল তা অভিযুক্তদের জেরা করে জানার চেষ্টা করছেন ইডির তদন্তকারীরা।

 

বন্ধ করুন