বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কলকাতায় অর্পিতার আরও ১ ফ্ল্যাটে ED-র হানা, তল্লাশি চলছে মাদুরদহেও
বালিগঞ্জের ফোর্ট ওয়েসিস আবাসন। 

কলকাতায় অর্পিতার আরও ১ ফ্ল্যাটে ED-র হানা, তল্লাশি চলছে মাদুরদহেও

  • এদিন দুপুরে পণ্ডিতিয়া রোডের ফোর্ট ওয়েসিস নামে একটি অভিজাত আবাসনে হানা দেয় ইডি। এই আবাসনের ব্লক ৬-এর ৫০৩ নম্বর ফ্ল্যাট ব্যবহার করতেন অর্পিতা। ইডির দাবি, ফ্ল্যাটটি পার্থ বা অর্পিতার নামে নয়। পার্থর নির্দেশে অর্পিতাকে ফ্ল্যাটটি ব্যবহার করতে দিয়েছিলেন অন্য এক ব্যক্তি।

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিকাণ্ডের তদন্তে মঙ্গলবার দুপুরে কলকাতা ও সংলগ্ন এলাকায় তল্লাশি জারি রাখলেন ইডির গোয়েন্দারা। এদিন দুপুরে ২টি জায়গায় হানা দেন তাঁরা। এর মধ্যে কলকাতার পণ্ডিতিয়া রোডের একটি ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালান তাঁরা। সেই ফ্ল্যাটে মাঝে মাঝে থাকতেন অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। ওদিকে মাদুরদহে অর্পিতার নামে থাকা একটি জমিতে তৈরি আবাসনে হানা দেয় ইডি। সেখানে আবাসিকদের জিজ্ঞাসাবাদ করছেন গোয়েন্দারা।

এদিন দুপুরে পণ্ডিতিয়া রোডের ফোর্ট ওয়েসিস নামে একটি অভিজাত আবাসনে হানা দেয় ইডি। এই আবাসনের ব্লক ৬-এর ৫০৩ নম্বর ফ্ল্যাট ব্যবহার করতেন অর্পিতা। ইডির দাবি, ফ্ল্যাটটি পার্থ বা অর্পিতার নামে নয়। পার্থর নির্দেশে অর্পিতাকে ফ্ল্যাটটি ব্যবহার করতে দিয়েছিলেন অন্য এক ব্যক্তি। গোয়েন্দাদের অনুমান, টালিগঞ্জ ও বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটের মতো এখানেও টাকা থাকতে পারে।

ওদিকে কলকাতা লাগোয়া মাদুরদহের হোসেনপুরে একটি ফ্ল্যাটে মঙ্গলবার দুপুরে হানা দেয় ইডির গোয়েন্দাদল। সেখানে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের নামে থাকা একটি জমিতে তৈরি হয়েছে একটি ফ্ল্যাট। সেই ফ্ল্যাটের আবাসিক ও পরিচারিকার থেকে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করেন গোয়েন্দারা।

Kolkata High Court: কেন আদালতের নির্দেশ মানা হয়নি? বেআইনি নির্মাণ নিয়ে এসপিকে তলব হাইকোর্টের‌

আবাসনটির পরিচারিকা জানিয়েছেন, আবাসনের মালিকানা মোট ৬ জনের। তবে তাদের সঙ্গে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের যোগ সম্পর্কে কিছু বলতে পারেননি তিনি।

ওদিকে সোমবার রাতে ফের একবার অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বেলঘরিয়ার আবাসনে হানা দেন এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের আধিকারিকরা। এই আবাসনে কারা আসা যাওয়া করতেন, তা খুঁজে বের করতেই এই অভিযান বলে জানা গিয়েছে। এই আবহে আবাসনের রেজিস্টার সংগ্রহ করেন ইডি আধিকারিকরা। পাশাপাশি আবাসনের বিশেষ অ্যাপের তথ্যও জোগাড় করেন তাঁরা। এদিকে সিসিটিভি ফুটেজ হাতে পাননি ইডি আধিকারিকরা। জানা গিয়েছে, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণেই নাকি সিসিটিভি ফুটেজ ইডির হাতে তুলে দেওয়া সম্ভব হয়নি।

ED In Arpita Mukherjee's Housing Society: সোমবার রাতে ফের অর্পিতার বেলঘরিয়ার আবাসনে ED আধিকারিকরা, অভিযানে মিলল কী?

এর আগে গত শনিবারই বেলঘরিয়া ও টালিগঞ্জে অর্পিতার আবাসনে গিয়ে ইডি আধিকারিকরা বেশ কিছু তথ্য চেয়ে এসেছিলেন। কারা, কখন আবাসনে এসেছেন সেই সংক্রান্ত তথ্য চেয়েছিলেন তদন্তকারীরা। সেই মতো সোমবার রাতে বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে এসে সেই তথ্য নিয়ে যান তাঁরা। উল্লেখ্য, বেলঘরিয়ার আবাসনে অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছিল প্রায় ২৭ কোটি টাকা। এরপরই বেলঘরিয়া আবাসনের সঙ্গে নাম জড়িয়েছিল তৃণমূলের এক বর্ষীয়ান সাংসদের। অভিযোগ ওঠে, সৌগত রায়ের সেই আবাসনে আনাগোনা ছিল। তবে সৌগত বাবু দাবি করেছেন, তাঁর সঙ্গে অর্পিতার যোগ প্রমাণ করতে পারলে তিনি রাজনীতি ছেড়ে দেবেন।

 

বন্ধ করুন