বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > হাইটাইড আসছে, জোয়ারের সময় বিদ্যুৎ বন্ধ রাখতে বলব, জানালেন মুখ্য়মন্ত্রী
সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় (নিজস্ব চিত্র)
সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় (নিজস্ব চিত্র)

হাইটাইড আসছে, জোয়ারের সময় বিদ্যুৎ বন্ধ রাখতে বলব, জানালেন মুখ্য়মন্ত্রী

  • আমার বাড়ির বিদ্যুৎও অফ করে রাখতে বলেছি, বললেন মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ইয়াসের তাণ্ডব কিছুটা সামলে ওঠার আগেই এবার আসছে ভরা কোটালে। ফের প্লাবিত হতে পারে বিস্তীর্ণ এলাকা। এমনটাই আশঙ্কা করছে রাজ্য় সরকার। নদী তীরবর্তী এলাকায় এর প্রভাব পড়তে পারে। সেক্ষেত্রে সেই সময় বিদ্যুৎ পরিষেবা চালু থাকলে বড় বিপদ ঘটে যেতে পারে। সেকারণে নির্দিষ্ট এলাকাগুলিতে জোয়ারের সময় ও জল জমে থাকার সময় বিদ্যুৎ পরিষেবা বন্ধ রাখার কথা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বুধবার রাতে ও বৃহস্পতিবার এই জোয়ারের সম্ভাবনা রয়েছে, জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। 

 

‘আমার বাড়ির বিদ্য়ুৎও অফ করে রেখেছি। বেশি প্লাবিত হলে জল আর বিদ্যুৎ একাকার হয়ে যায়।’ সাংবাদিক বৈঠকে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন মুখ্য়মন্ত্রী বলেন,'নদী, সমুদ্র তীরবর্তী এলাকায় যাঁরা থাকেন তাঁদের সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিলে ভালো হয়। কলকাতার উপকণ্ঠে বা কাছাকাছি যারা থাকবেন, সমস্ত থানাকে সতর্ক রাখার জন্য বলব পুলিশ কমিশনারকে, রাত ৮টা ৩৫ মিনিট নাগাদ জোয়ার আসবে সেখানেও যদি ৫ ফুট জল বাড়ে। সাইক্লোন ওয়াটারটাও থাকবে। বাণ আসবে বলে পুলিশকে মাইকে প্রচার করতে বলব। রাতে ও কালকেও বাণ আসবে। কেউ সেই সময় জলে নামবেন না। গঙ্গায় যে জোয়ারটা আসে তাকে হাইটাউড বলি। জোয়ার এতটাই বাড়বে সেটা বিপদ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ' নিরাপদ জায়গায় আশ্রয় নেওয়ার জন্যও আবেদন করেন তিনি।

 

পাশাপাশি তিনি বলেন,  ‘যখন এই টাইড আসবে বা জলটা জমে থাকবে তখন ইলেকট্রিসিটিকে বলছি বন্ধ রাখতে কারণ যাতে বৈদ্যুতিকরণ হয়ে কেউ মারা না যায়। সেই টাইমগুলো দেখে রেখে দরকারে বিদ্যুৎ স্ট্য়ান্ডবাই রেখে দেবেন। আমার বাড়ির বিদ্যুৎও বন্ধ করে রেখেছি। কারণ বেশি প্লাবিত হলে জল আর বিদ্যুৎ একাকার হয়ে যায়। একদিন সাফার করব ঠিক আছে। কিন্তু  সারাজীবন তো সাফার  করা যাবে না। তাই আজকের দিনটা, আর কালকের দিনটা যেহেতু ভরা কোটাল আছে।’ জানালেন মুখ্যমন্ত্রী।

 

বন্ধ করুন