বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > স্ত্রী সেরে উঠতেই করোনা আক্রান্ত লক্ষ্মীরতনের ছেলে
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

স্ত্রী সেরে উঠতেই করোনা আক্রান্ত লক্ষ্মীরতনের ছেলে

  • লক্ষ্মীর বড় ছেলের বয়স ১১। তাঁর শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ার পর ফের কোয়ারেন্টাইনে মন্ত্রীর পরিবার।

স্ত্রীর করোনামুক্তির পর এবার করোনা আক্রান্ত লক্ষ্মীরতন শুক্লর ছেলে। লক্ষ্মীর বড় ছেলের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট রবিবার পজিটিভ এসেছে। গত শুক্রবার কোরান মুক্ত হন লক্ষ্মীর স্ত্রী তথা রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের পদস্থ আমলা স্মিতা সান্যাল। তার পর ৪৮ ঘণ্টা কাটতে না কাটতে ফের সংক্রমণ ধরা পড়ল তাঁর পরিবারে। 

লক্ষ্মীর বড় ছেলের বয়স ১১। তাঁর শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ার পর ফের কোয়ারেন্টাইনে মন্ত্রীর পরিবার। গত ১১ জুলাই করোনা ধরা পড়ে স্মিতাদেবী। সেই থেকে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে গোটা পরিবার। এবার ছেলের করোনা ধরা পড়ায় আরও কয়েকদিন ঘরবন্দি থাকতে হবে হাওড়া জেলা তৃণমূলের নবনিযুক্ত সভাপতির। 

শুক্রবার স্মিতাদেবীর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। রবিবার ছেলের রিপোর্ট পজিটিভ হলেও লক্ষ্মীর রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। করোনা পরিস্থিতিতে নিজ নিজ ক্ষেত্রে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেছেন শুক্ল দম্পতি। একদিকে যেমন মন্ত্রী তথা শাসকদলের নেতা হিসাবে মাঠে ঘাটে চষে বেড়িয়েছেন লক্ষ্মী। তেমনই স্বাস্থ্যভবনে লাগাতার জরুরি পরিষেবার সুচারু রাখার কাজ করে গিয়েছেন স্মিতাদেবী। 

লক্ষ্মী জানিয়েছেন, তিনি সুস্থ রয়েছেন। তবে কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম মেনে বাড়ি থেকে বেরোচ্ছেন না। ফোনে যোগাযোগ রাখছেন প্রশাসনিক আধিকারিক ও দলের নেতাদের সঙ্গে।

 

বন্ধ করুন