বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে নিখোঁজ যুবকের দেহ মিলল পুকুরে
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে নিখোঁজ যুবকের দেহ মিলল পুকুরে

  • পরিবারের দাবি, এই খুনের পিছনে কারও হাত রয়েছে। কারণ সৌরভের গলার সোনার চেন মেলেনি। তাছাড়া দশমীর সকালে কিছুক্ষণের জন্য তাঁর ফোনটি বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

২৪ ঘণ্টারও বেশি নিখোঁজ থাকার পর বাড়ির সামনের পুকুর থেকে উদ্ধার হল মেধাবী ছাত্রের দেহ। মৃতের নাম সৌরভ সেনগুপ্ত। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে তিনি ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের চূড়ান্ত সেমেস্টারের ছাত্র ছিলেন। সোমবার রাতে বরানগরের টবিন রোড এলাকায় পুকুর থেকে তাঁর দেহ উদ্ধার হয়। ঘটনায় সৌরভের বন্ধুদের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ এনেছে তাঁর পরিবার। 

মৃতের পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, নবমীর বিকেলে মার কাছ থেকে টাকা নিয়ে ঠাকুর দেখতে বেরোন সৌরভ। জানিয়ে যান, সারা রাত ঠাকুর দেখে ফিরবেন দশমীর সকালে। কিন্তু সকাল হলেও ফেরেননি সৌরভ। তাঁকে ফোনে যোগাযোগ করা হলেও ফোন ধরেননি। এর পরই টবিন রোড এলাকার একটি পুকুর পাড় থেকে সৌরভের ফোনটি উদ্ধার হয়। পুকুরে তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার হয় তাঁর দেহ।

পরিবারের দাবি, এই খুনের পিছনে কারও হাত রয়েছে। কারণ সৌরভের গলার সোনার চেন মেলেনি। তাছাড়া দশমীর সকালে কিছুক্ষণের জন্য তাঁর ফোনটি বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। তাছাড়া সৌরভ সাঁতার জানতেন না, জলে ভয় পেতেন। এমন ছেলে কেন পুকুরপাড়ে বসবে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা। 

ঘটনায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করেছে বরানগর থানার পুলিশ। যে বন্ধুদের সঙ্গে সৌরভ ঠাকুর দেখতে বেরিয়েছিলেন তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। 

 

বন্ধ করুন