বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বঙ্গবাসী আশায় বুক বাঁধছে, নতুন রাজ্যপালকে ঘিরে কেন এই পোস্ট অগ্নিমিত্রার?

বঙ্গবাসী আশায় বুক বাঁধছে, নতুন রাজ্যপালকে ঘিরে কেন এই পোস্ট অগ্নিমিত্রার?

বাংলার নতুন রাজ্যপাল হিসাবে নিয়োজিত হচ্ছে সিভি আনন্দ বোস(ANI Photo) (Sobha Surendran)

অগ্নিমিত্রা লিখেছেন, পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্র নেই। আশা করি উনি গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে উদ্যোগ নেবেন। সংবাদমাধ্যমকে ভাবী রাজ্যপাল বলেছেন, গণতন্ত্রে কাজ করতে গিয়ে সংঘাত হতেই পারে। অনেক সময় তা অনিবার্য হয়ে দাঁড়ায়।

বাংলার নতুন রাজ্যপাল হিসাবে আসছেন সিভি আনন্দ বোস। এবার সেই নতুন রাজ্যপালকে স্বাগত জানিয়ে পোস্ট করেছেন আসানসোল দক্ষিণের বিজেপি বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পাল। তিনি লিখেছেন, নতুন রাজ্যপালকে স্বাগত। কঠিন সময়ের মধ্যে এই রাজ্যের দায়িত্ব নিচ্ছেন ডঃ সিভি আনন্দ বোস। নিয়োগ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বাংলার রাজ্যপাল হিসাবে তাঁর কার্যকালের সূচনা হবে যেদিন তিনি দায়িত্ব নিতে চাইবেন সেদিন থেকেই।

অগ্নিমিত্রা লিখেছেন, পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্র নেই। আশা করি উনি গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে উদ্যোগ নেবেন। সংবাদমাধ্যমকে ভাবী রাজ্যপাল বলেছেন, গণতন্ত্রে কাজ করতে গিয়ে সংঘাত হতেই পারে। অনেক সময় তা অনিবার্য হয়ে দাঁড়ায়। সংঘাত, মতবিরোধ নিয়ে বিচলিত হওয়ার কিছু দেখছি না। বিরোধ তো হতেই পারে। এরপরই বিজেপি বিধায়ক লিখেছেন, বঙ্গবাসী আশায় বুক বাঁধছে।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, তবে কি সিভি আনন্দ বোসের হাত ধরে ফের সেই রাজ্য- রাজ্যপাল সংঘাত দেখবে বাংলা? বিগতদিনে যখন বাংলার রাজ্যপাল ছিলেন জগদীপ ধনখড় তখন দিনের পর দিন ধরে রাজ্য ও রাজ্যপালের মধ্যে সংঘাত চরমে উঠেছিল। এরপর ধনখড় উপরাষ্ট্রপতি হওয়ার পরে অস্থায়ীভাবে বাংলার রাজ্যপাল হয়েছিলেন শ্রী লা গণেশন। কিন্তু তাঁর সঙ্গে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর সেভাবে সংঘাত দেখা দেয়নি। বরং রাজ্যপালের দাদার জন্মদিনে চেন্নাইতেও চলে গিয়েছিলেন মমতা। তবে রাজ্যপালের চেয়ারে বসার আগেই সেই সংঘাতের প্রশ্ন উসকে দিলেন প্রাক্তন আমলা তথা বাংলার ভাবী রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস।

 

বন্ধ করুন