বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > পানিহাটিতে ধরা পড়ল ভুয়ো টিকাকরণ শিবির, ৩০০ টাকা দিলেই মিলছিল ভ্যাকসিন
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

পানিহাটিতে ধরা পড়ল ভুয়ো টিকাকরণ শিবির, ৩০০ টাকা দিলেই মিলছিল ভ্যাকসিন

  • প্রদীপবাবু জানান, তিন দিন পর পানিহাটি পৌরসভার লেটার হেডে একটি শংসাপত্র দেওয়া হয় তাঁকে। সম্প্রতি তাঁর ফোনে একটি মেসেজ আসে। সেই মেসেজে লেখা ছিল ১৯ এপ্রিল প্রথম ডোজ ও ১১ অগাস্ট দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন তিনি।

ফের করোনার ভুয়ো টিকাকরণ শিবির ধরা পড়ল রাজ্যে। এবার উত্তর ২৪ পরগনার পানিহাটিতে এক চিকিৎসেকর চেম্বার থেকে টাকার বিনিময়ে টিকা দেওয়ার অভিযোগ তুলে সরব হলেন এক ব্যক্তি। অভিযোগ পেয়ে ঘটনার তদন্তে নেমেছে খড়দা থানার পুলিশ। অভিযুক্ত চিকিৎসককে জিজ্ঞাসাবাদ করছে তারা।

প্রদীপ মজুমদার নামে ওই ব্যক্তির অভিযোগ, গত জুনে তিনি জানতে পারেন পানিহাটিতে এক জায়গায় টাকার বিনিময়ে টিকা মিলছে। যোগাযোগ করেন একটি ফোন নম্বরে। গত ১৭ জুন তাঁকে পানিহাটির ধানকল মেড়ে চিকিৎসক রূদ্র পালের ক্লিনিকে যোগাযোগ করতে বলা হয়। ওই দিন সেখান থেকেই টিকার প্রথম ডোজ পান তিনি। বিনিময়ে নেওয়া হয় ৩০০ টাকা। তবে তখন টিকার সার্টিফিকেট বা টাকার রসিদ পাননি তিনি।

প্রদীপবাবু জানান, তিন দিন পর পানিহাটি পৌরসভার লেটার হেডে একটি শংসাপত্র দেওয়া হয় তাঁকে। সম্প্রতি তাঁর ফোনে একটি মেসেজ আসে। সেই মেসেজে লেখা ছিল ১৯ এপ্রিল প্রথম ডোজ ও ১১ অগাস্ট দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন তিনি। ওদিকে টিকার দ্বিতীয় ডোজ এখনো নেননি ওই ব্যক্তি। এর পরই টনক নড়ে প্রদীপবাবুর। পুলিশে অভিযোগ করেন তিনি।

তদন্তে নেমে ওই টিকাকরণের কোনও অনুমোদন ছিল কি না তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। অনুমোদন না থাকলে কী টিকা সেখানে দেওয়া হচ্ছিল তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। যদিও পানিহাটি পুরসভার তরফে জানানো হয়েছে, যে প্যাডে টিকার শংসাপত্র দেওয়া হয়েছে সেটি আসল।

বন্ধ করুন