বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > তেষ্টা পেলেও মেলেনি জল, মৃত্যু ৮ বছরের মেয়ের, হাসপাতালে বিক্ষোভ পরিবারের
শিশু মৃত্যুর অভিযোগ (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
শিশু মৃত্যুর অভিযোগ (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

তেষ্টা পেলেও মেলেনি জল, মৃত্যু ৮ বছরের মেয়ের, হাসপাতালে বিক্ষোভ পরিবারের

  • চিকিৎসকদের ভুল চিকিৎসার ফলে বছর আটেকের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন পরিবার।

মানিকতলার একটি বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ উঠল। চিকিৎসকদের ভুল চিকিৎসার ফলে বছর আটেকের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছে পরিবার। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই বেসরকারি হাসপাতালে বিক্ষোভ করেন মৃত শিশুর পরিবারের লোকেরা। যদিও পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

মৃত শিশুর নাম সৃজা দত্ত। সে মানিকতলা থানা এলাকার বাসিন্দা। পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, বেশ কয়েকদিন ধরে জ্বরে ভুগছিল সৃজা। ক্রমেই তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে স্থানীয় একটি নার্সিংহোমে ভরতি করা হয়। কিন্তু সেখানে তাকে ঠিকমতো চিকিৎসা না করার অভিযোগ তুলেছেন পরিবারের লোকেরা।

তাদের অভিযোগ নার্সিংহোমে ভরতি করার পরেও চিকিৎসক ও নার্সরা তাকে ঠিকমতো দেখভাল করেননি। জ্বরের সঙ্গে সঙ্গে সৃজার পেটেও অসহ্য যন্ত্রণা হচ্ছিল। বুধবার সকাল থেকেই তার পেট ফুলে ওঠে। অভিযোগ, চিকিৎসকদের বারবার বলা সত্ত্বেও এ নিয়ে কোনওরকম চিকিৎসা করা হয়নি। শুধুমাত্র ব্যথা কমানোর ওষুধ দেওয়া হয়। পরিবারের আরও অভিযোগ, ঘনঘন তেষ্টাও পাচ্ছিল সৃজার। কিন্তু তাকে জল দেওয়ার মতো কোনও নার্স সেখানে ছিল না। এর ফলে তার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হতে থাকে। অবশেষে বুধবার সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়।

এই ঘটনার পরেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন পরিবারের লোকেরা। তাদের অভিযোগ, বারবার বলা সত্ত্বেও তাদের শিশুর ঠিকমতো চিকিৎসা করা হয়নি। পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা নার্সিংহোমে গেলে পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এরপরে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। অন্যদিকে, নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ দাবি জানিয়েছে যে চিকিৎসায় কোনওরকম গাফিলতি করা হয়নি।

বন্ধ করুন