বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > টিভি সিরিয়ালে মশগুল বাড়ির সদস্যরা, খাস কলকাতায় ঘটল দুঃসাহসিক চুরি
লক্ষাধিক টাকা এবং বহ মূল্যের সোনার গয়না চুরি।
লক্ষাধিক টাকা এবং বহ মূল্যের সোনার গয়না চুরি।

টিভি সিরিয়ালে মশগুল বাড়ির সদস্যরা, খাস কলকাতায় ঘটল দুঃসাহসিক চুরি

  • এই ঠিকানায় থাকেন গোপাল হালদারের পরিবার। আর গোপালবাবু বাড়ি ফিরে দেখেন সব শেষ।

ভরসন্ধ্যায় খাস কলকাতায় দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা ঘটতে পারে তা অনেকে ভাবতেই পারছেন না। পরিবারের সদস্যরা তখন টিভিতে সিরিয়াল দেখছিলেন। বাড়ির অন্য প্রান্তে সেভাবে খেয়াল রাখা ছিল না। এই অবস্থায় বাড়ির দরজার তালা ভাঙা হল এবং লক্ষাধিক টাকা এবং বহ মূল্যের সোনার গয়না লুঠ করে চম্পট দিল দুষ্কৃতীরা বলে অভিযোগ। রবিবার সন্ধ্যায় খাস কলকাতার কসবা থানা এলাকার ১৫–ই কলুপাড়া লেনে এই ঘটনা ঘটেছে। এই ঠিকানায় থাকেন গোপাল হালদারের পরিবার। আর গোপালবাবু বাড়ি ফিরে দেখেন সব শেষ।

এই পরিবার সূত্রে খবর, সন্ধ্যাবেলায় বাড়ির সবাই সিরিয়াল দেখছিলেন। গোপাল হালদার স্ত্রী–ছেলেকে নিয়ে বাড়ির বাইরে ছিলেন। বাড়িতে ছিলেন তাঁর মা–বোন। এই ফাঁকা বাড়ির সুযোগ নিয়ে হানা দেয় দুষ্কৃতীরা। অভিযোগ, তিনতলার ছাদ দিয়ে তারা ঢুকেছিল। বাড়ির কেউ টের পায়নি। তারপর দোতলার ঘরের দরজার হ্যাশবোল্ড ভেঙে নগদ প্রায় তিন লক্ষ টাকা এবং প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা মূল্যের সোনার গয়না নিয়ে চম্পট দেয় চোরের দল। কসবা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, এই চুরির ঘটনা সম্ভবত সন্ধ্যে ৮টা নাগাদ ঘটেছিল। বাড়িতে কোনও সদস্য ছিলেন না। আর যাঁরা ছিলেন তাঁরা ঘরে বসে টিভিতে সিরিয়াল দেখছিলেন। গোটা ঘটনার তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এলাকার সিসিটিভি ফুটেজও খতিয়ে দেখা যাচ্ছে। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু হয়েছে। বাড়ির সদস্যদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এই বিষয়ে বাড়ির কর্তা গোপাল হালদার বলেন, ‘‌আমরা বাড়ি ফিরি ৮টা নাগাদ। তখন আমার ছেলে উপরের ঘরে যায়। দরজা খোলা, আলমারি খোলা, লকার ভাঙা দেখে আমাকে ডাকে। আমি গিয়ে দেখি সব লুঠ হয়ে গিয়েছে। এটা দুঃসাহসিক চুরি। বাড়ি ফিরে এই ঘটনা দেখতে হবে ভাবিনি। বাড়িতে ফিরে এসে দেখি এই অবস্থা।’‌

বন্ধ করুন