ছবিটি প্রতীকী।
ছবিটি প্রতীকী।

শহরে ফের করোনা আতঙ্ক, হাসপাতালে ভরতি হলেন মার্কিন পর্যটক

রবিবার সকালে অসুস্থ অবস্থায় তাঁকে পার্ক স্ট্রিট অঞ্চলে ঘুরতে দেখে সাহায্যের জন্য এগিয়ে যান এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্যরা। তাঁদের চেষ্টাতেই তাঁকে হাসপাতালে পরীক্ষা করার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

কলকাতায় নতুন আতঙ্ক ছড়াল করোনাভাইরাস। মারাত্মক জীবাণু সংক্রামিত সন্দেহে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে আমেরিকার এক নাগরিককে।আইসোলেশন ওয়ার্ডে রেখে তাঁর চিকিত্সা চলেছে বলে হাসপাতাল সূত্রে খবর।

জানা গিয়েছে, ওই ব্যক্তির শরীরে করোনাভাইরাস সংক্রমণের উপসর্গ দেখা দেওয়ার পরে হাসপাতালে ভরতি করা হয়। তবে এখনও পর্যন্ত তাঁর রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া যায়নি বলে সংক্রমণের বিস্তারিত তথ্য মেলেনি।

গত ৩১ জানুয়ারি থাইল্যান্ড থেকে ভারতে এসে পৌঁছন মার্কিন নাগরিক মার্ক টুলিয়ো। রবিবার সকালে অসুস্থ অবস্থায় তাঁকে পার্ক স্ট্রিট অঞ্চলে ঘুরতে দেখে সাহায্যের জন্য এগিয়ে যান এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্যরা। তাঁদের চেষ্টাতেই তাঁকে হাসপাতালে পরীক্ষা করার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। উপসর্গ দেখে তাঁকে দ্রুত হাসপাতালে ভরতি করার পরামর্শ দেন চিকিত্সকরা। আপাতত তাঁকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে।


আরও পড়ুন: উহানের ভারতীয়দের নিয়ে ফিরল এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান, করোনাভাইরাসের পরীক্ষা শুরু


এর আগে গত ২৭ জানুয়ারি জ্বর ও সর্দি-কাশি নিয়ে আইডি হাসপাতালেই ভরতি হন চিনা যুবতী জো হুয়া মিং। তবে পরীক্ষা করার পরে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হননি বলে জানিয়ে দেন চিকিত্সকরা।

চিনের উহান থেকে বিশ্বের বেশ কিছু দেশে ইতিমধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে মারাত্মক নোভেল করোনাভাইরাস। মারণজীবাণু সংক্রমণের আতঙ্ক ছড়িয়েছে কলকাতার বাসিন্দাদের মধ্যেও। সম্প্রতি শহরের বিভিন্ন হাসপাতালে রোগ নির্ণয়ের জন্য পরীক্ষা এবং আক্রান্তদের চিকিত্সকদের জন্য আলাদা বিভাগ সংরক্ষিত হয়েছে।

আগে করোনাভাইরাস সংক্রমণজনিত পরীক্ষা হত পুনের ন্যাশনাল ইনস্টটিউট অফ ভাইরোলজিতে। শহরের রোগীদের রক্তের নমুনা পাঠাতে হত সেখানেই। কিন্তু কিছু দিন হল রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের উদ্যোগে বেলেঘাটায় ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেজিক্যাল রিসার্চ - ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ কলেরা অ্যান্ড এন্টেরিক ডিজিজে (নাইসেড) প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো গড়ে তোলা হয়েছে। সেখানেই রোগ নির্ণয়ের জন্য পরীক্ষা করা হচ্ছে রোগীর সোয়াব।

বন্ধ করুন