বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কেপিসি হাসপাতালে তাণ্ডব চালালো দুষ্কৃতীরা, ভাঙচুর–সহ মাথা ফাটল নিরাপত্তারক্ষীর
কেপিসি হাসপাতাল। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
কেপিসি হাসপাতাল। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

কেপিসি হাসপাতালে তাণ্ডব চালালো দুষ্কৃতীরা, ভাঙচুর–সহ মাথা ফাটল নিরাপত্তারক্ষীর

  • যাদবপুর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তবে কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি।

রাতের শহরে কেপিসি হাসপাতালে দুষ্কৃতী তাণ্ডবের অভিযোগ উঠল। আর তাতেই সরগরম হয়ে উঠল যাদবপুর এলাকা। অভিযোগ, কয়েকজন দুষ্কৃতী নিরাপত্তারক্ষীকে বেধড়ক মারধর করেছে। এমনকী মাথাও ফাটিয়ে দিয়েছে তাঁর। এই তাণ্ডবের জেরে দু’টি অ্যাম্বুল্যান্স এবং একটি শববাহী গাড়িতেও ভাঙচুর চালায় দুষ্কৃতীরা। যাদবপুর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তবে কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি।

কিন্তু কেন এমন ঘটনা ঘটল?‌ এই বিষয়ে হাসপাতালের সুপার অরবিন্দ রায় জানান, মঙ্গলবার রাতে প্রায় ১২ জন অজ্ঞাতপরিচয়ের ব্যক্তি হাসপাতালের সামনে আসে। আর কোনও কথা না বলে হাসপাতালের বাইরে থাকা অ্যাম্বুল্যান্স এবং শববাহী গাড়িতে ভাঙচুর চালাতে থাকে। তাতে বাধা দেন হাসপাতালের নিরাপত্তারক্ষী। অভিযোগ, বাধা দিলে দুষ্কৃতীরা তাঁকে বেধড়ক মারধর করে। মাথা ফাটিয়ে দেয় তাঁর। এই ঘটনায় যাদবপুর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

কেন এই দুষ্কৃতী তাণ্ডব? হাসপাতাল সূত্রে খবর, কিছুদিন আগে অ্যাম্বুল্যান্স চালকদের একাংশের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে অক্সিজেন ফ্লোমিটারের কালোবাজারি নিয়ে। অভিযোগ, কয়েকজন অ্যাম্বুল্যান্স চালক বেশি দামে রোগীর পরিবারকে অক্সিজেন ফ্লোমিটার বিক্রি করছে। তাতে বাধাও দিয়েছিল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এই কালোবাজারি ঠেকাতে হাসপাতালের নিজস্ব ছাড়া অন্য অ্যাম্বুল্যান্স কেপিসির বাইরে দাঁড়াতেও দেওয়া বন্ধ করা হয়। তার প্রতিশোধ নিতেই রাতের অন্ধকারে অ্যাম্বুল্যান্স এবং শববাহী গাড়িতে ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয় বলে মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন