বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > লম্ফমান বাঘ থাকলেও সরছে কাস্তে–হাতুড়ি, কবে পতাকা পরিবর্তন ফরওয়ার্ড ব্লকের?‌
ফরওয়ার্ড ব্লক। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

লম্ফমান বাঘ থাকলেও সরছে কাস্তে–হাতুড়ি, কবে পতাকা পরিবর্তন ফরওয়ার্ড ব্লকের?‌

  • পার্টির একটা বড় অংশ পতাকার পরিবর্তনের দাবি তুলেছিলেন অনেকদিন ধরে। তারপর মাদুরাই কাউন্সিলে সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রস্তাব এসেছিল। পরে ভুবনেশ্বর কাউন্সিলের আগে ফরওয়ার্ড ব্লক রাজ্য কাউন্সিলের সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে ভোটাভুটির সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় পার্টিকে পাঠানো হয়।

বিতর্ক–জল্পনা–গুঞ্জন। এবার সবকিছুর অবসান ঘটাতে চলেছে নেতাজির দল ফরওয়ার্ড ব্লক। পতাকায় লম্ফমান বাঘ থাকলেও কাস্তে হাতুড়ি সরে যাচ্ছে। আগামী ২২ জুন দলের প্রতিষ্ঠা দিবসে নতুন পতাকা প্রকাশ্যে নিয়ে আসা হবে। তবে পতাকার রং লালই থাকছে। মূল প্রতীক লম্ফমান বাঘও থাকছে। শরিকদের কাছে এই ঘটনা কোন বার্তা বয়ে নিয়ে আসে সেটাই দেখার।

কেন সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে কাস্তে–হাতুড়ি?‌ এই বিষয়ে ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য সম্পাদক সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘‌আমরা কমিউনিস্ট ইন্টারন্যাশনালের সঙ্গে যেহেতু নেই তাই পতাকার অংশটুকু পরিবর্তন করলাম। আমরা কৃষক ও শ্রমিকের পাশে দাঁড়িয়ে লড়ব। সুভাষচন্দ্র বসু ভারতে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছিলেন কৃষি ও শিল্পে। তাই এটাকেই গুরুত্ব দিয়ে দেখবে দল। মানুষ বলছে ভারতীয় বামপন্থার জনক সুভাষচন্দ্র। সুভাষচন্দ্রের চেয়ে বড় আন্তর্জাতিক বিশ্লেষক ভারতে আজ পর্যন্ত কোনও নেতা জন্মায়নি। তাই এই বিষয়ে তিনিই আমাদের আইকন।’‌

দলের ভিতরের খবর কী?‌ দলীয় সূত্রে খবর, পার্টির একটা বড় অংশ পতাকার পরিবর্তনের দাবি তুলেছিলেন অনেকদিন ধরে। তারপর মাদুরাই কাউন্সিলে সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রস্তাব এসেছিল। পরে ভুবনেশ্বর কাউন্সিলের আগে ফরওয়ার্ড ব্লক রাজ্য কাউন্সিলের সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে ভোটাভুটির সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় পার্টিকে পাঠানো হয়। অবশেষে ভুবনেশ্বর কাউন্সিলে সর্বসম্মতিক্রমে পতাকা পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত হয়।

কী বলছে ফরওয়ার্ড ব্লক?‌ এই বিষয়ে নরেন চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‌এখন মানুষের কাছে যেতে হবে। আমরা পরিবর্তন কেনও করলাম?‌ সেটা জানাতে হবে। ফরওয়ার্ড ব্লক সুভাষচন্দ্রের দল। ফরওয়ার্ড ব্লকের পক্ষ থেকে আমরা সুভাষবাদের প্রচার করব। ভারতীয় মাটিতে ভারতীয় মতের পথের কথা সুভাষচন্দ্র বলে গিয়েছিলেন। আমরা সেই পথেই চলব।’‌

বন্ধ করুন