বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Assembly Session: বিজেপির চার বিধায়ক অধিবেশন থেকে বাদ পড়লেন!‌ বিধানসভায় এমন কী ঘটল?

Assembly Session: বিজেপির চার বিধায়ক অধিবেশন থেকে বাদ পড়লেন!‌ বিধানসভায় এমন কী ঘটল?

বিধানসভার অধিবেশন। (টুইটার)

বিধানসভায় ফের তুমুল বিক্ষোভ দেখান বিরোধীরা। এদিন শিক্ষা সংক্রান্ত দুর্নীতির অভিযোগে বিজেপি বিধায়করা অধিবেশন কক্ষে স্লোগান দিতে থাকেন। যার জেরে অধিবেশন চালাতেও সমস্যা হয় অধ্যক্ষের। যার পরিপ্রেক্ষিতে এদিন চার বিজেপি বিধায়ককে ‘শাস্তি’ দিয়েছেন অধ্যক্ষ।

বিধানসভার শীতকালীন অধিবেশনের উল্লেখ পর্ব থেকে বাদ পড়লেন বিজেপির চার বিধায়ক। এই ঘটনায় বেশ চাপে পড়ে গেল বিরোধী দল। বিরোধীরা যে আচরণ সোমবার করেছেন বিধানসভায় তা নিয়মের পরিপন্থী। আর তাতেই বেজায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার বিধানসভায় ফের তুমুল বিক্ষোভ দেখান বিরোধীরা। এদিন শিক্ষা সংক্রান্ত দুর্নীতির অভিযোগে বিজেপি বিধায়করা অধিবেশন কক্ষে স্লোগান দিতে থাকেন। যার জেরে অধিবেশন চালাতেও সমস্যা হয় অধ্যক্ষের। যার পরিপ্রেক্ষিতে এদিন চার বিজেপি বিধায়ককে ‘শাস্তি’ দিয়েছেন অধ্যক্ষ।

কেন শাস্তির মুখে পড়লেন চার বিজেপি বিধায়ক?‌ বিধানসভা সূত্রে খবর, এই চার বিজেপি বিধায়করা হলেন—নিখিলরঞ্জন দে, হিরণ চট্টোপাধ্যায়, পার্থসারথি চট্টোপাধ্যায় এবং গোপালচন্দ্র সাহা। এদিনের অধিবেশনের উল্লেখ পর্বে তাঁদের নাম নথিভুক্ত ছিল। সেখানে অধ্যক্ষ তাঁদের নাম ধরে বারবার ডাকা সত্ত্বেও তাঁরা তাতে সাড়া দেননি। উলটৈ বিক্ষোভ দেখিয়ে চলেন। তাই অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দেন, চলতি অধিবেশনের উল্লেখ পর্বে ওই চার বিজেপি বিধায়ক আর অংশ নিতে পারবেন না।

ঠিক কী ঘটেছে বিধানসভায়?‌ সোমবার বিধানসভায় শিক্ষা সংক্রান্ত দুর্নীতি ইস্যুতে অধিবেশন পর্বে আলোচনার দাবি তোলেন বিরোধীরা। অধ্যক্ষ সেই দাবি খারিজ করে দেন। কারণ সেটা বিচারাধীন। যার পরিপ্রেক্ষিতেই শুরু হয় বিজেপি বিধায়কদের হই–হট্টগোল। তখন বিধানসভায় উল্লেখ পর্ব চলছিল। যেখানে আগে থেকেই বিজেপির চার বিধায়করে নাম নথিভুক্ত ছিল। তাঁরা নিজেদের এলাকা সংক্রান্ত কোনও বক্তব্য সেখানে রাখতে পারতেন। কিন্তু তাঁরা তা না করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন! এমনকী অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় নাম ধরে ডাকলেও তাতে কর্ণপাত করেননি তাঁরা। বিরোধীদের এই আচরণকে ‘অসংযত’ এবং ‘অসংসদীয়’ আখ্যা দিয়ে শাস্তি দেন তিনি।

ঠিক কী বলেছেন বিধানসভার অধ্যক্ষ?‌ এই ঘটনার পর অধ্যক্ষ নিজের অসন্তোষ প্রকাশ করেন। বিমানবাবু বিধানসভায় বলেন, ‘‌এখানে বিরোধীদের কথা বলার অনেক সুযোগ দেওয়া হয়। অস্ট্রেলিয়া থেকে আসা প্রতিনিধিরাও তার প্রশংসা করেছেন। কিন্তু বিধানসভার মান–মর্যাদা কীভাবে রক্ষা করতে হয়, সেটা ভুলে যাচ্ছেন বিরোধীরা। বিরোধীদেরও উচিত অধ্যক্ষকে সম্মান জানানো এবং সচেতন থাকা। অধ্যক্ষ যখন কারও নাম ডাকছেন, তখন তাঁরা হইচই করতে ব্যস্ত! তাই চলতি অধিবেশনের উল্লেখ পর্বে সংশ্লিষ্ট চার বিজেপি বিধায়ক আর অংশ নিতে পারবেন না।’‌ এদিন কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, পূর্ব নির্ধারিত সময়সূচি মেনেই ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে অধিবেশন। পরিষদীয় মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, আজ, বুধবার বেঙ্গল ডিস্ট্রিক্ট রিপেলিং বিল পেশ হবে।

বাংলার মুখ খবর

Latest News

গায়ে হলুদ, সিক্ত শরীরে লেপটে আছে গাঁদার পাপড়ি, শোভন-সোহিনীর বিয়ের অদেখা ঝলক কেমন কাটবে আগামিকাল শ্রাবণের প্রথম সোমবার? ২২ জুলাইয়ের রাশিফল দেখে নিন 'দল ব্যবস্থা নেবে... যতবড় নেতার ছত্রছায়ায় থাকুন', ২১ এর সভা থেকে অভিষেক-বার্তা ছেলের সঙ্গে সাঁতারে ডুব প্রিয়াঙ্কার, 'রাহুল কোথায়?' প্রশ্ন নেটপাড়ার সর্বদলীয় মিটিং থেকে লাইভ টুইট করেছেন জয়রাম রমেশের, খোঁচা দিল বিজেপি 'এগুলো আমায় শেখাবে না, এসব গান আমার মুখস্থ', মঞ্চেই কাকে বকা দিলেন মমতা? গুরু পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে বিশেষ আয়োজন, কার পুজো করলেন কাঞ্চন-শ্রীময়ী? ‘‌বিপদের মুখে একতাই শক্তি’‌, বাংলাদেশ থেকে ফেরা নাগরিকদের সাহায্যের আশ্বাস মমতার ট্রেন্ট ব্রিজে শতরান জো রুটের! বিরাটকে পিছনে ফেলে টেস্টে টপকে গেলেন চন্দরপলকেও! সোহিনীর জন্মদিন 'স্বামী-হীন', ৩ বছরের বিয়ে ভাঙছে? প্রথমবার মুখ খুললেন নায়িকা

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.