বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > টানা চারদিন বন্ধ রাখা হচ্ছে কলকাতা হাইকোর্ট, জেনে নিন কিসের জন্য
কলকাতা হাইকোর্ট। (ফাইল ছবি, সৌজন্য কলকাতা হাইকোর্ট)
কলকাতা হাইকোর্ট। (ফাইল ছবি, সৌজন্য কলকাতা হাইকোর্ট)

টানা চারদিন বন্ধ রাখা হচ্ছে কলকাতা হাইকোর্ট, জেনে নিন কিসের জন্য

  • ২ এপ্রিল গুড ফ্রাইডে উপলক্ষ্যে আদালত বন্ধ থাকে। সেক্ষেত্রে টানা চার দিন বন্ধ থাকবে হাইকোর্ট।

করোনাভাইরাস এখনও পাততাড়ি গোটায়নি। বরং এই সংক্রমণের বাড়বাড়ন্তে তিনদিন বন্ধ হতে চলেছে কলকাতা হাইকোর্ট। যদিও বা কাজকর্ম শুরু হয়েছিল, এখন হঠাৎ করে টানা তিনদিন বন্ধ রাখা হচ্ছে। সুতরাং বিচার পর্বের কাজ থমকে যাবে। আদালত সূত্রে খবর, রাজ্যে যেভাবে করোনা পরিস্থিতি বেড়েছে, তাতে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। তাই হাইকোর্টের আইনজীবীদের বৃহত্তর সংগঠন বার অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে আগামী ৩০, ৩১ মার্চ ও ১ এপ্রিল আদালত বন্ধ রাখার জন্য আবেদন করা হয়েছিল। ২ এপ্রিল গুড ফ্রাইডে উপলক্ষ্যে আদালত বন্ধ থাকে। সেক্ষেত্রে টানা চার দিন বন্ধ থাকবে হাইকোর্ট।

আদালতে কান পাতলে আলোচনা শোনা যায়—দেখতে দেখতে এক বছর হয়ে গেল লকডাউনের। এখন লকডাউন নেই। মারণ ভাইরাস বিনাশে ভ্যাকসিন এসেছে। কিন্তু নয়া গতিতে ফের বাড়ছে করোনাভাইরাস। আবার লকডাউন হবে না তো? এই আশঙ্কায় ভুগছেন অনেকেই। তার মধ্যে এই করোনার কারণেই টানা হাইকোর্ট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তে চর্চা আরও গতি পেয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে আদালতকে জীবাণুমুক্ত করার জন্য আবেদন জানানো হয় বার অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে। সেই আবেদন মেনেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট প্রশাসন। তবে হাইকোর্ট প্রশাসনের পক্ষ থেকে পাল্টা বার অ্যাসোসিয়েশনের কাছে আগামী ১৭ এপ্রিল, ১৫ মে ও ১৯ জুন তিনটে শনিবার ছুটির দিন কাজে যোগ দেওয়ার জন্য আবেদন জানানো হয়েছে।

বন্ধ করুন