বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > করোনা যোদ্ধাদের উদ্দেশ্যে আজ দেবীর বোধন, নিউ নর্ম্যালে এখন এটাই ট্রেন্ড
চন্দ্রবাড়ির ছবি
চন্দ্রবাড়ির ছবি

করোনা যোদ্ধাদের উদ্দেশ্যে আজ দেবীর বোধন, নিউ নর্ম্যালে এখন এটাই ট্রেন্ড

  • আজ মহাষষ্ঠী। করোনা আবহে দেবীর বোধনের প্রস্তুতি তুঙ্গে। কিন্তু স্বাস্থ্যের কারণে কেউ মণ্ডপে প্রবেশ করতে পারবেন না। সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে। কলকাতা হাইকোর্টও রায় দিয়েছে দর্শকশূন্য পুজোমণ্ডপ রাখতে হবে।

আজ মহাষষ্ঠী। করোনা আবহে দেবীর বোধনের প্রস্তুতি তুঙ্গে। কিন্তু স্বাস্থ্যের কারণে কেউ মণ্ডপে প্রবেশ করতে পারবেন না। সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে। কলকাতা হাইকোর্টও রায় দিয়েছে দর্শকশূন্য পুজোমণ্ডপ রাখতে হবে। তাই দুর্গার সাজে এবার সেজে উঠছে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীরা। আর অসুর করোনা। কারণ এঁরাই করোনা–যোদ্ধা। আর এটাই ট্রেন্ড সেট করেছে নিউ নর্ম্যাল। মহামারীর এই আবহে সাধারণ মানুষ আর মাটির মূর্তি নয়, বরং মানুষকেই বসিয়েছে দেবীর আসনে। চিকিৎসক–স্বাস্থ্যকর্মীদের লড়াই ও আত্মত্যাগকে সম্মান করেই এই থিম।

সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনদের বাহবা পেয়েছে এই কনসেপ্ট। এমনকী ছবিগুলিও রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে। ফ্রন্টলাইন যোদ্ধাদের কুর্নিশ জানিয়ে সেজেছে মণ্ডপ। কোনও ছবিতে দেখা গিয়েছে পুলিশের বেশে গনেশ, নার্স লক্ষ্মী সাংবাদিক সরস্বতী, স্বাস্থ্যকর্মী কার্ত্তিক। আসলে কোনও ইস্যুই বাদ যাচ্ছে না দুর্গাপুজোর মরশুমে। এই বিষয়গুলিই এখন ট্রেন্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এই বছরের পুজোয় কোনও থিমের জাঁকজমক নেই। প্যান্ডেলে ভিড় নেই, রাত জেগে ঠাকুর দেখার পরিকল্পনাও নেই। কারণ একদিকে করোনা আবহ, অন্যদিকে কলকাতা হাইকোর্টের রায়। তাই মনমরা বাঙালির দুর্গাপুজোয় এখন শুধুই মহামারী থেকে মুক্তির প্রার্থনা। ভরসা থাকুক চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী এবং সেই সমস্ত ফ্রণ্টলাইন যোদ্ধাদের প্রতি।

বন্ধ করুন