বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ভ্রাতৃবধূর করোনাভাইরাস হয়েছে, ভাই বাইরে ছিলেন, ধমক দিলেন ‘‌দিদি’‌ মমতা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  (ANI )
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  (ANI )

ভ্রাতৃবধূর করোনাভাইরাস হয়েছে, ভাই বাইরে ছিলেন, ধমক দিলেন ‘‌দিদি’‌ মমতা

  • এই ঘটনাতেই দিদি অত্যন্ত ক্ষুব্ধ। তাই ধমক দিয়ে ভাইকে শাসন করেছেন দিদি মমতা।

করোনাভাইরাস রজ্যজুড়ে রক্তচক্ষু দেখাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে বাড়িতে কেউ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে বাকি সদস্যদেরও বাড়ির বাইরে না বেরনোর পরামর্শ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই কথা বলতে গিয়ে তিনি জানান, তাঁর নিজের বাড়িতেও এমন ঘটনা ঘটেছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তাঁর ছোট ভাইয়ের স্ত্রী। কিন্তু বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন ছোট ভাই। এই ঘটনাতেই দিদি অত্যন্ত ক্ষুব্ধ। তাই ধমক দিয়ে ভাইকে শাসন করেছেন দিদি মমতা।

ঠিক কী বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী?‌ এদিন সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌কারও স্ত্রীয়ের কোভিড হয়েছে। দেখা যাচ্ছে, স্বামী বহাল তবিয়তে বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। ভাবছে, আমি তো নেগেটিভ। আমি তো মিশতেই পারি। না, সেটা করা যায় না। বাড়িতে কারও হলেই প্রতিটি সদস্যকে আইসোলেশনে থাকা উচিত। এটা আমরা ভুলে গিয়েছি।’

মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে ঠিক কী হয়েছে?‌ এদিন নিজেই সেই কথা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘‌এই কাজ আমার বাড়িরই একজন সদস্য করেছে। আমার ছোট ভাইয়ের স্ত্রীর কোভিড হয়েছে। আর বাবুন এখানে সেখানে ঘুরে বেড়াচ্ছে। আমি খুবই অফেন্ডেড হয়েছি। এটা পছন্দ করি না আমি। চ্যারিটি বিগিন্‌স অ্যাট হোম। আমি বলে দিয়েছি, আগামীকাল থেকে কোথাও বেরোবে না। আমাদের প্রত্যেককে সচেতন হতে হবে।’ ভাইকে এভাবেই ধমক দিয়ে গৃহবন্দি করেছেন দিদি মমতা বলে মনে করছেন অনেকেই।

এদিন তিনি বিধিনিষেধ নিয়ে বলেন, ‘‌বেশ কিছু বিধিনিষেধ ঘোষণা করা হয়েছে। পরবর্তী পরিস্থিতি বিচার করে প্রয়োজনে আরও কিছু ঘোষণা করা হতে পারে। ট্রেন না চালালে বলবে ট্রেন বন্ধ রেখেছে। আর ট্রেন চালালে ভিড় হবে। মানুষের জীবন-জীবিকার কথাও তো ভাবা প্রয়োজন। বলুন আমরা কোন দিকে যাব? এগোলেও দোষ, পিছলেও দোষ।’

বন্ধ করুন