বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > লাক্সারি ট্যাক্সি চালককে বেধড়ক মারধর দুষ্কৃতীদের, পার্ক সার্কাসে ধুন্ধুমার কাণ্ড
তদন্ত শুরু করেছে কড়েয়া থানার পুলিশ।
তদন্ত শুরু করেছে কড়েয়া থানার পুলিশ।

লাক্সারি ট্যাক্সি চালককে বেধড়ক মারধর দুষ্কৃতীদের, পার্ক সার্কাসে ধুন্ধুমার কাণ্ড

  • বাধা পেয়ে পালিয়ে গেলেও পরে দলবল এবং লাঠিসোটা নিয়ে ফের ওই এলাকায় চড়াও হয়। স্থানীয়দের প্রতিরোধের মুখে অবশেষে তারা পিছু হঠে। কড়েয়া থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। দুষ্কৃতীরা এখনও অধরা। তবে আক্রান্ত ট্যাক্সি চালকের বয়ান নেওয়া হয়েছে। এরা কারা?‌ তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ফের রাতের কলকাতায় ট্যাক্সি চালককে মারধর করার অভিযোগ উঠল। এই অভিযোগ উঠেছে কযেকজন দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে। মারধরের জেরে আক্রান্ত ট্যাক্সি চালক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। কড়েয়া থানা এলাকায় এই ঘটনায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে। লাক্সারি ট্যাক্সির চালককে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনা নিয়ে কড়েয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ঠিক কী ঘটেছে পার্ক সার্কাসে?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, শনিবার রাত আড়াইটে নাগাদ দেখা যায়, পার্ক সার্কাসে ৫–৬ জন যুবক মিলে এক অ্যাপ ক্যাব চালককে মারধর করতে থাকে। এই দেখে বাধা দেয় লাক্সারি ট্যাক্সির চালক। তখন তাঁর উপর দুষ্কৃতীরা চড়াও হয় এবং বেধড়ক মারধর করতে থাকে। আক্রান্ত ট্যাক্সি চালক চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

কী বলছেন আক্রান্ত ট্যাক্সি চালক?‌ আক্রান্ত ট্যাক্সি চালক সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘রাত আড়াইটে নাগাদ পার্ক সার্কাসে গাড়ি পার্কিংয়ের সময় ৫–৬ জন যুবক এক অ্যাপ ক্যাব চালককে মারধর করছিল। বাধা দেওয়ায় ওই যুবকরা আমার ওপর চড়াও হয়। বেধড়ক মারধর করে বলে অভিযোগ। তবে স্থানীয়রা চলে আসায় পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা।’‌

তারপর ঠিক কী হল?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, বাধা পেয়ে পালিয়ে গেলেও পরে দলবল এবং লাঠিসোটা নিয়ে ফের ওই এলাকায় চড়াও হয়। স্থানীয়দের প্রতিরোধের মুখে অবশেষে তারা পিছু হঠে। কড়েয়া থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। দুষ্কৃতীরা এখনও অধরা। তবে আক্রান্ত ট্যাক্সি চালকের বয়ান নেওয়া হয়েছে। এরা কারা?‌ তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বন্ধ করুন