বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > পরিচারিকাদের জন্য কোর্স, মশলা বাটা, কাপড় কাচার সঙ্গে আদব কায়দা শেখাবে সরকার
পরিচারিকাদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দেবে শ্রম দফতর (প্রতীকী ছবি)
পরিচারিকাদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দেবে শ্রম দফতর (প্রতীকী ছবি)

পরিচারিকাদের জন্য কোর্স, মশলা বাটা, কাপড় কাচার সঙ্গে আদব কায়দা শেখাবে সরকার

  • কোর্স শেষ করে পরিচারিকাদের সার্টিফিকেটও দেওয়া হবে

গ্রাম মফস্বল থেকে অনেকেই কলকাতা শহর এবং শহরতলির বিভিন্ন বাড়িতে পরিচারিকার কাজ করতে আসেন। এদিকে এখন শহরের অনেক পরিবারই গৃহস্থালির কাজ করার জন্য যন্ত্রনির্ভর। জামা কাপড় পরিষ্কারের জন্য ঘরে ঘরে ওয়াশিং মেশিন। ঘর পরিষ্কারের জন্য় ভ্যাকুয়াম ক্লিনারও ব্যবহার করা হয়। এর সঙ্গে রান্নার কাজে সহায়তার জন্য মিক্সার, গ্রাইন্ডার, মাইক্রোওভেন তো আছেই। কিন্তু পরিচারিকাদের অনেকেই এই ধরনের মেশিন ঠিকঠাক ব্য়বহার করতে পারেন না। এর জেরে কর্মস্থলে তাঁদের যথেষ্ট অস্বস্তিতে পড়তে হয়। এবার সেই পরিচারিকাদের সহায়তা করার জন্য এগিয়ে আসছে রাজ্য সরকারের শ্রম দফতর। 

আপাতত ঠিক হয়েছে শ্রম দফতর এনিয়ে পরিচারিকাদের প্রশিক্ষণও দেবে। আগামীদিনে যাতে তারা এই যন্ত্রগুলি চালাতে পারেন সেজন্য তাঁদের জন্য বিশেষ কোর্সের ব্যবস্থা করা হবে। তবে শুধু যন্ত্র চালানোই নয় আদব কায়দা, সামাজিক বিভিন্ন শিষ্টাচার, ব্যাঙ্ক সংক্রান্ত টুকিটাকি কাজ, প্রাথমিক চিকিৎসার নানা দিক তাদের শেখানো হবে। প্রশিক্ষণ শেষে তাঁদের শংসাপত্রও দেওয়া হবে। বিভিন্ন বাড়িতে পরিচারিকা হিসাবে নিয়োগের সময় তাঁরা এগুলো দেখাতে পারবেন।

 

তবে এই ধরনের প্রশিক্ষণ শিবিরে পরিচারিকাদের জন্য তিনদিনের কোর্সে ২৫০ টাকা করে দৈনিক ভাতারও ব্যবস্থা করছে সরকার। বাসিন্দাদের দাবি এই ধরণের যন্ত্র চালাতে না পারার জেরে অনেকে পরিচারিকার কাজও ঠিকঠাক পান না। কিন্তু এই ধরণের যন্ত্র চালানোর কোর্স করা থাকলে তারা সহজেই বিভিন্ন উচ্চবিত্ত পরিবারেও যথাযথ বেতনের কাজ পেতে পারেন। বারুইপুরে পরীক্ষামূলকভাবে এই ধরনের প্রশিক্ষণ শিবিরের আয়োজন করা হয়েছিল। শ্রম দফতর সূত্রে খবর, সেখানে শতাধিক পরিচারিকা অংশ নিয়েছিলেন। এবার উত্তর ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলিতেও ধাপে ধাপে এই ধরনের প্রশিক্ষণ শিবিরের আয়োজন করা হবে। 

 

বন্ধ করুন