পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ফাইল ছবি (PTI)
পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ফাইল ছবি (PTI)

বিধিভঙ্গের অভিযোগ, পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে শো - কজ রাজ্যপালের

  • আমন্ত্রণরনপত্রে রয়েছে মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, রবীন্দ্রনাথ ঘোষ ও বিনয়কৃষ্ণ বর্মনের নাম। কিন্তু আচার্যের নামই গরহাজির সেখানে।

বিধিভঙ্গের অভিযোগে কোচবিহারের ঠাকুর পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে শো-কজ করলেন আচার্য তথা রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। বৃহস্পতিবার রাজভবন থেকে শো কজের নথি উপাচার্য দেবকুমার মুখোপাধ্যায় ও উচ্চ শিক্ষা সচিব মণীশ জৈনকে পাঠানো হয়েছে। তবে রাজ ভবনের তোলা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন উপাচার্য।

আগামিকাল পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠান। রাজভবনের অভিযোগ, সেই অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ পত্রে রাজ্যের মন্ত্রীদের নাম রয়েছে, কিন্তু নাম নেই রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের। আমন্ত্রণরনপত্রে রয়েছে মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, রবীন্দ্রনাথ ঘোষ ও বিনয়কৃষ্ণ বর্মনের নাম। কিন্তু আচার্যের নামই গরহাজির সেখানে।

রাজভবন থেকে প্রকাশিত শো-কজের চিঠি। নিজস্ব চিত্র
রাজভবন থেকে প্রকাশিত শো-কজের চিঠি। নিজস্ব চিত্র


এই অভিযোগে পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দেবকুমার মুখোপাধ্যায়কে শো কজ করেছেন আচার্য জগদীপ ধনখড়। জবাবে সংবাদমাধ্যমকে উপাচার্য জানিয়েছেন, সমাবর্তনে যোগদানের আমন্ত্রণ জানিয়ে রাজ্যপালকে সময়মতো চিঠি পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু সেই চিঠির কোনও জবাব মেলেনি। ফলে তাঁর নাম ছাড়াই আমরা আমন্ত্রণপত্র ছাপাতে বাধ্য হয়েছি।

ওদিকে রাজভবন থেকে প্রকাশিত শো-কজে বেশ কড়া ভাষায় মন্তব্য করা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, জবাব সন্তোষজনক না হলে অপসারণ করা হতে পারে দেবকুমারবাবুকে।


বন্ধ করুন