বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘হাওড়া পুরসভার ৬৬টি ওয়ার্ডে ভোট করাতে পারে কমিশন' ইঙ্গিত রাজ্যপালের
রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ফাইল ছবি।
রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ফাইল ছবি।

‘হাওড়া পুরসভার ৬৬টি ওয়ার্ডে ভোট করাতে পারে কমিশন' ইঙ্গিত রাজ্যপালের

  • আজ সোমবার রাজ্যের বাকি পুরসভাগুলোতে ভোট নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। তারই মধ্যে হাওড়া পুরসভার ভোট নিয়ে জল্পনা উস্কে দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর।

হাওড়া সংশোধনী বিলে এখনও সই করেননি রাজ্যপাল। ফলে হাওড়া এবং বালি পুরসভায় নির্বাচনের ক্ষেত্রে আইনি জটিলতা রয়েছে। এদিকে, আজ সোমবার রাজ্যের বাকি পুরসভাগুলোতে ভোট নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। তারই মধ্যে হাওড়া পুরসভার ভোট নিয়ে জল্পনা উস্কে দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

সোমবার সকালে ট্যুইট করে তিনি বলেন, '২০১৫ সালের মতো রাজ্য নির্বাচন কমিশন হাওড়া পুরসভার ৬৬টি ওয়ার্ডে ভোট করাতে পারে।' রাজ্যপালের এই টুইটের পরেই হাওড়া পুরসভায় ভোট নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। যদিও পুরসভার সংশোধনী বিল যেহেতু এখনও রাজ্যপালের কাছে আটকে রয়েছে সেই কারণে আইনগতভাবে সেখানে ভোট করা সম্ভব নয় বলে মত আইনজীবিদের। তাহলে রাজ্যপাল কি দ্রুতই হাওড়া পুরসভা সংশোধনী বিলে সই করবেন? এমনই জল্পনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

প্রসঙ্গত, গতকাল রবিবার সংবাদ মাধ্যমের সামনে তিনি বিধানসভার স্পিকারের বিরুদ্ধে একগুচ্ছ নালিশ জানিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, হাওড়া পুরসভার সংশোধনী বিলের কোনও নথি তাঁকে বিধানসভা থেকে দেওয়া হয়নি। তাঁর দাবি, 'গত ২৪ নভেম্বর হাওড়া পুরসভার সংশোধনী বিলের নথি চেয়েছিলাম। রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান হিসেবে আমার দায়িত্ব সমস্ত কিছু সঠিক রয়েছে কিনা তা দেখা। কিন্তু, চার সপ্তাহ পেরিয়ে যাওয়ার পরেও এখনও সেই নথি আমাকে দেওয়া হয়নি।'

এদিকে আজ সোমবার বাকি পুরসভাগুলোতে নির্বাচনের জন্য সমস্ত দলের সঙ্গে বৈঠক রাজ্য নির্বাচন কমিশনের। তার আগে হাওড়া পুরসভা নির্বাচন নিয়ে রাজ্যপাল যে ইঙ্গিত দিয়েছেন তা যথেষ্টই তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহল।

অন্যদিকে, গত শুক্রবার রাজ্যপাল হাওড়া পুরসভার সংশোধনী বিলে সই করেছিলেন বলে খবর ছড়িয়ে পড়েছিল। যদিও পরের দিন টুইট করে বিলে সই না করা নিয়ে নিজের অবস্থানের কথা স্পষ্ট করেন রাজ্যপাল।

বন্ধ করুন