বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > HIDCO-র দায়িত্ব নিয়েই গ্রিন সিটি ও খেল সিটি তৈরির কথা বললেন ফিরহাদ
ফিরহাদ হাকিম (PTI)
ফিরহাদ হাকিম (PTI)

HIDCO-র দায়িত্ব নিয়েই গ্রিন সিটি ও খেল সিটি তৈরির কথা বললেন ফিরহাদ

  • ফিরহাদ হেলথ সিটি ও ফিল্ম সিটি তৈরির করার ব্যাপারেও সরকারের চিন্তাভাবনার কথা জানান।

‌নিউটাউনের মতোই গ্রিন সিটি ও খেল সিটি তৈরির পরিকল্পনা করছে রাজ্য সরকার। শুক্রবার এই কথাই জানালেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা হিডকোর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম। হিডকোর উদ্যোগেই এই দুই ধরনের নতুন শহর তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে। কলকাতার আশেপাশেই হবে এই নতুন ধরনের শহর।

এদিন নিউটাউন ইকো পার্ক ওয়েবসাইটের নতুন করে উদ্বোধন করলেন ফিরহাদ হাকিম। এই প্রসঙ্গে রাজ্যের মন্ত্রী জানান, অনেকদিন ধরেই গ্রিন সিটি ও খেল সিটি তৈরি করার পরিকল্পনা চলছে। অন্যান্য টাউনশিপ গড়ার ব্যাপারেও চিন্তাভাবনা চলছে। হিডকোর উদ্যোগে এই সব টাউনশিপ গড়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। একইসঙ্গে রাজারহাট নিউটাউনের ভবিষ্যত প্রসঙ্গেও রাজ্যের মন্ত্রী জানান, নিউটাউনে ফিনানশিয়াল হাব হয়েছে। শিল্পের জন্য রাজারহাট নিউটাউনের কাজ নয়। সিলিকন ভ্যালির কাজও চলছে। করোনা পরিস্থিতি কেটে গেলেই দেখবেন আগামীদিনে রাজারহাট বিনিয়োগকারীদের কাছে ফিনানশিয়াল ডেস্টিনেশন হয়ে উঠবে। এদিন ফিরহাদ হাকিম স্পষ্ট ভাবেই বলেন, নিউটাউন তৈরির জন্য যারা জমি দিয়েছে, তাঁরা বেশিরভাগই ক্ষতিপূরণের টাকা পেয়ে গিয়েছে। একজন–দুজন যাঁরা আসছেন, তাঁরা সমস্যাও মিটে যাবে। এদিন ফিরহাদ হেলথ সিটি ও ফিল্ম সিটি তৈরির করার ব্যাপারেও সরকারের চিন্তাভাবনার কথা জানান। সরকার যে এই বিষয়ে সুস্পষ্ট পরিকল্পনা করছে, সেবিষয়েও জানান মন্ত্রী।

হিডকোর চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেওয়ার পর এই প্রথম হিডকো ভবনে যান ফিরহাদ হাকিম। তিনি হিডকোর অন্যান্য দেবাশিস সেন সহ হিডকোর অন্যান্য উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গেও কথা বলেন। এদিন ফিরহাদ আরও জানান, হিউকো শুধু নিউটাউনের প্রজেক্ট নিয়েই নয়, শান্তিনিকেতনেও কাজ করছে। আগামী দিনে নতুন নতুন প্রকল্পের কাজ হবে।

বন্ধ করুন