বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Sealdah Local: বস্তা থেকে বের হচ্ছিল দুর্গন্ধ! বাংলাদেশে পাচারের আগেই উদ্ধার ১০৩ টি কচ্ছপ
উদ্ধার হওয়া কচ্ছপ। প্রতীকী ছবি।

Sealdah Local: বস্তা থেকে বের হচ্ছিল দুর্গন্ধ! বাংলাদেশে পাচারের আগেই উদ্ধার ১০৩ টি কচ্ছপ

  • জিআরপি সূত্রে জানা গিয়েছে, গতকাল ভোরে ফেরিঘাট থেকে নৈহাটি স্টেশন হয়ে কচ্ছপগুলি শিয়ালদাগামী লোকাল ট্রেনে করে নিয়ে যাচ্ছিল পাচারকারীরা। একটি বস্তার ভিতরে প্রায় ১০৩ টি কচ্ছপ নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল বলে জানতে পারে জিআরপি।

ট্রেনে করে চলছিল কচ্ছপ পাচার। তার আগেই পাচারকারীদের উদ্দেশ্য বানচাল করল জিআরপি। অবৈধভাবে কচ্ছপ পাচারের অভিযোগে এক মহিলা-সহ ২ পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে জিআরপি। এই সমস্ত কচ্ছপ বাংলাদেশে পাচারের উদ্দেশ্য ছিল বলে প্রাথমিকভাবে জেরায় জানা গিয়েছে। ধৃত দুই পাচারকারী উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা।

জিআরপি সূত্রে জানা গিয়েছে, গতকাল ভোরে ফেরিঘাট থেকে নৈহাটি স্টেশন হয়ে কচ্ছপগুলি শিয়ালদাগামী লোকাল ট্রেনে করে নিয়ে যাচ্ছিল পাচারকারীরা। একটি বস্তার ভিতরে প্রায় ১০৩ টি কচ্ছপ নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল বলে জানতে পারে জিআরপি। কিন্তু, বিপত্তি ঘটে পচা দুর্গন্ধের কারণে। কচ্ছপগুলির মধ্যে তিনটি মারা যাওয়ায় প্রচণ্ড দুর্গন্ধ বের হচ্ছিল। তাতে ট্রেনের অন্য যাত্রীদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়ে পাচারকারীরা। তখনই জানা যায়, বস্তার মধ্যে রয়েছে কচ্ছপ। ঘটনায় জিআরপিকে খবর দেন যাত্রীরা। খবর পাওয়ার পরেই জিআরপি এসে বস্তা তল্লাশি চালাতেই বেরিয়ে আসে কচ্ছপ।

জিআরপি সূত্রে জানা গিয়েছে, এই সমস্ত কচ্ছর স্থানীয় বাজারে দাম ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা হলেও বাংলাদেশের বাজারে কয়েক হাজার টাকা পর্যন্ত দাম রয়েছে এই সমস্ত কচ্ছপের। ধৃত মহিলা পাচারকারীর নাম রিয়া পাথরকর। প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান, কচ্ছপগুলি উত্তরপ্রদেশ থেকে বাংলায় নিয়ে আসা হয়েছিল। তারপর ওই সমস্ত কচ্ছপ বাংলাদেশে পাচারের উদ্দেশ্য ছিল। সম্প্রতি, আরপিএফ এবং জিআরপি তল্লাশি চালিয়ে শিয়ালদা, হাওড়া সহ বিভিন্ন স্টেশন থেকে প্রচুর পরিমাণে কচ্ছপ উদ্ধার করেছে। এই সমস্ত কচ্ছপ ভিন রাজ্য থেকে বাংলায় নিয়ে আসা হয়েছিল।

বন্ধ করুন