বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > হরিদেবপুর: লাইটপোস্ট ধরতেই ছিটকে পড়ল কিশোর, জমা জলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু
এভাবেই জল জমা ছিল স্থানীয় রাস্তায়। ফাইল ছবি (ANI Photo) (Ashok Nath Dey)

হরিদেবপুর: লাইটপোস্ট ধরতেই ছিটকে পড়ল কিশোর, জমা জলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু

  • ভয়াবহ ঘটনা। এর দায় কে নেবে? আবার কোল খালি হয়ে গেল এক মায়ের। জমা জলে বিদ্যুতের খুঁটি ধরতেই বড় বিপত্তি। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু স্কুল ছাত্রের।

ভয়াবহ ঘটনা হরিদেবপুরে। লাইটপোস্টে হাত দিতেই ছিটকে তড়িদাহত হয়ে মৃত্যু স্কুল ছাত্রের। জলমগ্ন রাস্তায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রের। মৃতের নাম নীতীশ যাদব।  স্থানীয় সূত্রে খবর, অল্প বৃষ্টিতে ওই রাস্তায় জল জমে যায়। রবিবার সন্ধ্যায় সেই জমা জল ভেঙে দিদিমণির জন্য় প্রসাদ নিয়ে যাচ্ছিল কিশোর। রাস্তার ধার দিয়েই যাচ্ছিল। রাস্তার ধারে থাকা লাইটপোস্টটা ধরতেই বিপত্তি। ছিটকে পড়ে স্কুল পড়ুয়া কিশোর। দীর্ঘক্ষণ রাস্তাতেই পড়েছিল ওই স্কুল ছাত্র। আতঙ্কে কেউ এগোতে পারেনি। 

বাসিন্দাদের অভিযোগ বার বার পুলিশকে, বিদ্যুৎ দফতরে ফোন করা হয়। কিন্তু তারা ফোনে নানা বিবরণ নিচ্ছিল। কিন্তু কোনওভাবেই তারা দ্রুততার সঙ্গে এলাকায় পৌঁছায়নি। পরে এলাকায় এসে বিদ্যুৎসংযোগ বিচ্ছিন্ন করে কিশোরের দেহ তোলা হয়। বিদ্যাসাগর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

বাসিন্দাদের দাবি ওই ছাত্র এদিন সন্ধ্য়ায় পাড়ার একটি বাড়ি থেকে প্রসাদ খেয়েছিল। এরপর সেই প্রসাদ নিয়ে শিক্ষিকার বাড়িতে পৌঁছে দিতে যায়। সিসি ক্যামেরার ফুটেজেও দেখা গিয়েছে সেই ছবি। বিদ্যুতের পোস্ট ধরতেই ছিটকে পড়ে সে। পাশে পড়ে যায় প্রসাদের প্যাকেট। কিন্তু কাদের গাফিলতিতে এই মৃত্যু। অতীতে দমদমেও একই ধরনের ঘটনা হয়েছিল। তারপরেও কি সতর্ক হয়নি বিদ্যুৎ দফতর? প্রশ্নটা থেকেই গিয়েছে। 

বন্ধ করুন