বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > ১৫ অগাস্টের মধ্যে মেটাতে হবে বেসরকারি স্কুলে ফিজ, নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের
কলকাতা হাইকোর্ট। ফাইল ছবি
কলকাতা হাইকোর্ট। ফাইল ছবি

১৫ অগাস্টের মধ্যে মেটাতে হবে বেসরকারি স্কুলে ফিজ, নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

  • নিজেদের দাবি আদায়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন জনাকয়েক অভিভাবক। জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিলেন তারা।

লকডাউনে বেসরকারি স্কুলের বেতন আংশিক মকুবের দাবিতে অভিভাবকদের দায়ের করা জনস্বার্থ মামলার অন্তর্বতীকালীন রায় দিল কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। অভিভাবরদের আবেদন খারিজ করে বিচারপতিরা জানিয়েছেন, আগামী ৩১ অগাস্টের মধ্যে বকেয়া বেতনের ৮০ শতাংশ মিটিয়ে দিতে হবে অভিভাবকদের। আদালতের এই নির্দেশে হতাশ অভিভাবকরা। 

গত মার্চ থেকে গোটা দেশে চলছে লকডাউন। তখন থেকেই বন্ধ সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। বেসরকারি স্কুলের পড়ুয়াদের অভিভাবকদের দাবি, স্কুল যেহেতু বন্ধ তাই  আংশিক বেতন মকুব করতে হবে স্কুল কর্তৃপক্ষকে। কারণ, অনলাইনে পঠনপাঠন চালু থাকলেও বাকি পরিষেবা ব্যবহার করছে না ছাত্রছাত্রীরা। তাই টিউশন ফি ছাড়া বেতনের অন্যান্য অংশ নেওয়ার অধিকার নেই স্কুলগুলির। এই নিয়ে প্রায় রোজই রাজ্যের কোনও না কোনও স্কুলের সামনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন অভিভাবকরা। 

নিজেদের দাবি আদায়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন জনাকয়েক অভিভাবক। জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিলেন তারা। কিন্তু হিতে হল বিপরীত। বেতন মকুব তো দূরের কথা উলটে বেতন মেটানোর দিনক্ষণ বেঁধে দিন আদালত। 

এদিন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও বিচারপতি মৌসুমি ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চ মামলাটির রায়ে জানিয়েছেন, আগামী ১৫ অগাস্টের মধ্যে বকেয়া বেতনের ৮০ শতাংশ শোধ করতে হবে অভিভাবকদের। সম্ভব হলে ১০০ শতাংশই মেটাতে হবে। ৩১ জুলাই পর্যন্ত বকেয়া রাশির ওপর হবে এই হিসাব। 

একই সঙ্গে স্কুলগুলিকে আয় ব্যয়ের হিসাব দিতে বলেছে আদালত। হলফনামা আকারে এই হিসাব পেশ করতে হবে। আগামী অগাস্টে ফের শুনানি হবে মামলাটির।

 

বন্ধ করুন