বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কেন অবমাননার মামলা হবে না? NHRC সদস্যদের উপর হামলার ঘটনায় DCP-কে নোটিশ আদালতের
যাদবপুরে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্যরা হামলার শিকার হন (ছবি : এনএনআই)
যাদবপুরে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্যরা হামলার শিকার হন (ছবি : এনএনআই)

কেন অবমাননার মামলা হবে না? NHRC সদস্যদের উপর হামলার ঘটনায় DCP-কে নোটিশ আদালতের

  • রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসার বিষয়ে খতিয়ে দেখতে এসে যাদবপুরে হামলার শিকার হয়েছিলেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্যরা। এই ঘটনায় এবার SP, DM-কে নোটিশ পাঠাল উচ্চ আদালত।

রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসার বিষয়ে খতিয়ে দেখতে এসে যাদবপুরে হামলার শিকার হয়েছিলেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্যরা। সেই ঘটনার প্রেক্ষিতে এদিন কড়া নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। এদিন মামলার শুনানিতে উচ্চ আদালতের পাঁচ সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চ যাদবপুরের ডিএম, পুলিশ সুপারকে নোটিশ পাঠানোর কথা জানায়। যাদবপুরে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্যদের হেনস্থা করার ঘটনার প্রেক্ষিতেই এই নোটিশ ইস্যু করা হয়। ঘটনার প্রেক্ষিতে দক্ষিণ কলকাতার ডেপুটি পুলিশ কমিশনার রশিদ মুনিরকে আদালত অবমাননার নোটিশ পাঠানো হয়।

যাদবপুরে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্যদের হেনস্থা করার ঘটনায় স্থানীয় প্রশাসনের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে উচ্চ আদালত। পাশাপাশি ডিএম এবং এসপির কাছে জানতে চাওয়া হয়েছে, কেন এই ঘটনার প্রেক্ষিতে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করা হবে না? উল্লেখ্য, দুই দিন আগেই ভোট-পরবর্তী হিংসার মামলায় কলকাতা হাইকোর্টে খামবন্দি রিপোর্ট জমা করে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। এদিন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের তদন্তের মেয়াদ ১৩ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয় উচ্চ আদালতের তরফে। এই মামলার পরবর্তী শুনানি ১৩ জুলাই হবে বলে জানিয়ে দেয় আদালত।

এর আগে রাজ্য প্রশাসন জানিয়েছিল ভোটের পরে হিংসার ঘটনা ঘটেনি। সরকার অস্বীকার করলেও, রাজ্যে হিংসার ঘটনা ঘটেছে বলে জানায় কলকাতা হাইকোর্ট। তাই রাজ্যে হিংসার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে কলকাতা হাইকোর্ট তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে। প্রাথমিকভাবে দেখা যায় আক্রান্ত মানুষ কেন্দ্রীয় মানবাধিকার কমিশনের কাছে কয়েকশো অভিযোগ দায়ের করলেও, রাজ্য মানবাধিকার কমিশনে কোনও অভিযোগ দায়ের করেনি। এই নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে কলকাতা হাইকোর্ট।

এরপরই ভোট পরবর্তী হিংসার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে তাই জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকে কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। এই তদন্তে রাজ্য সরকার সহযোগিতা করবে কমিশনের প্রতিনিধিদের। এর অন্যথা হলে আদালত অবমাননার দায় নিতে হবে রাজ্যকে। এমন হুঁশিয়ারিও দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট।

বন্ধ করুন