বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগে মল্লিকবাজারের INK-কে জরিমানা স্বাস্থ্য কমিশনের
ইন্সটিটিউট অফ নিউরোসায়েন্স। ফাইল ছবি
ইন্সটিটিউট অফ নিউরোসায়েন্স। ফাইল ছবি

চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগে মল্লিকবাজারের INK-কে জরিমানা স্বাস্থ্য কমিশনের

  • জরুরি বিভাগে এসির প্রচণ্ড ঠান্ডার মধ্যে তাঁকে ৬ ঘণ্টা ফেলে রাখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। বার বার বললেও হাসপাতালের তরফে রোগীকে একটা কম্বল পর্যন্ত দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ।

চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগে কলকাতার ইন্সটিটিউট অফ নিউরোসায়েন্স ১ লক্ষ টাকা জরিমানা করল স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রণ কমিশন। সুবোধ কুমার মণ্ডল নামে হুগলির বাসিন্দা এক রোগীর মৃত্যুতে এই রায় দিয়েছে কমিশন। সঙ্গে রায়ে মৃতের পরিবার সন্তুষ্ট না হলে ফের আবেদনের সুযোগ দিয়েছেন কমিশনের প্রধান অসীমকুমার বন্দ্যোপাধ্যায়।

গত ১৩ জানুয়ারি কলকাতার একটি বেসরকারি নার্সিং হোম থেকে ইন্সটিটিউট অফ নিউরোসায়েন্সে স্থানান্তর করা হয় ৮৬ বছর বয়সী সুবোধবাবুকে। অভিযোগ, সেখানে জরুরি বিভাগে এসির প্রচণ্ড ঠান্ডার মধ্যে তাঁকে ৬ ঘণ্টা ফেলে রাখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। বার বার বললেও হাসপাতালের তরফে রোগীকে একটা কম্বল পর্যন্ত দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ। তার জেরে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত দেন তিনি। এর পর তাঁকে ভেন্টিলেশনে রাখতে হয়। অভিযোগ, ভেন্টিলেশনের নল লাগানোর সময় সুবোধবাবুর রক্তনালী ছিঁড়ে যায়। যার জেরে তাঁর পরিস্থিতি আরও জটিল হয়ে পড়ে।

৬ দিন ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্সে চিকিৎসাধীন থাকার পর তাঁকে হুগলির একটি নার্সিংহোমে স্থানান্তর করেন পরিজনরা। সেখানে মৃত্যু হয় বৃদ্ধের। এর পর স্বাস্থ্য কমিশনের কাছে নিউরোসায়েন্সের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন মৃতের বাড়ির লোকেরা। 

এই ঘটনায় INK-র গাফিলতি মেনে নিয়েছে কমিশন। কমিশন জানিয়েছে, একজন বৃদ্ধ ঠান্ডায় ঠকঠক করে কাঁপছেন, তাঁকে একটা কম্বল দিতে পারল না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এবিষয়ে হাসপাতালের বক্তব্য হলফনামা আকারে জমা দিতে বলেছে কমিশন। সঙ্গে ক্ষতিপূরণ হিসাবে মৃতের পরিবারকে ১ লক্ষ টাকা দিতে বলেছে কমিশন।

 

বন্ধ করুন