বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আরও তীব্র হল তাপপ্রবাহ, দক্ষিণবঙ্গে পারদ ছাড়াল ৪৪ ডিগ্রি
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

আরও তীব্র হল তাপপ্রবাহ, দক্ষিণবঙ্গে পারদ ছাড়াল ৪৪ ডিগ্রি

  • এদিনও দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে। এদিন নতুন রেকর্ড গড়েছে পুরুল্যা।

চলতি সপ্তাহের বাকি দিনগুলোর মতো বৃহস্পতিবারও দক্ষিণবঙ্গজুড়ে জারি রইল প্রবল তাপপ্রবাহ। এদিনও দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে। এদিন নতুন রেকর্ড গড়েছে পুরুল্যা। সেখানে পারদ পার করেছে ৪৪ ডিগ্রির কোঠা। বৃহস্পতিবার পুরুলিয়ায় হাসপাতালে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে এসে সান স্ট্রোকে মৃত্যু হয়েছে এক প্রসূতির।

বৃহস্পতিবার পুরুল্যায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪৪.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা এই মরশুমে সর্বোচ্চ। এক নজরে রাজ্যের বিভিন্ন শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা।

আসানসোল – ৪২.৬

বাঁকুড়া - ৪২.২

বারাকপুর – ৩৮.২

বসিরহাট – ৩৭.৫

বহরমপুর – ৩৮.২

বর্ধমান – ৩৯.৮

ক্যানিং - ৩৭.৬

দমদম – ৩৮.৩

কলাইকুন্ডা - ৪০.৯

কলকাতা - ৩৭.৩

কৃষ্ণনগর – ৪০.২

মেদিনীপুর – ৪০.৪

পানাগড় - ৪০.০

পুরুল্যা - ৪৪.৩

বিধাননগর (কলকাতা) - ৩৭.৪

শ্রীনিকেতন – ৩৯.৪

উলুবেড়িয়া - ৩৯.০

পূর্বাভাস অনুসারে আগামী ২ – ৩ দিন চলবে তাপপ্রবাহ। তার পর দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় হতে পারে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি। যার জেরে কমতে পারে তাপমাত্রা।

এদিন পুরুলিয়া শহরে ডাক্তার দেখাতে এসে সান স্ট্রোকে মৃত্যু হয়েছে এক প্রসূতির। পুঞ্চার বাসিন্দা চৈতালি মাহাতো নামে ওই বধূ বৃহস্পতিবার স্বামীর সঙ্গে পুরুলিয়া শহরে ডাক্তার দেখাতে আসেন। সেজন্য বেশ কিছুক্ষণ রোদে হাঁটতে হয় তাঁদের। এর পর দম্পতি একটি হোটেলে খেতে ঢোকেন। তখন মাটিতে লুটিয়ে পড়েন চৈতালিদেবী। দেবেন মাহাতো মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

 

বন্ধ করুন