বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কড়েয়া এলাকার বাড়িতে তীব্র বিস্ফোরণ, ঘটনাস্থলে ফরেনসিক–পুলিশ–গোয়েন্দা
বিস্ফোরণের পর খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
বিস্ফোরণের পর খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

কড়েয়া এলাকার বাড়িতে তীব্র বিস্ফোরণ, ঘটনাস্থলে ফরেনসিক–পুলিশ–গোয়েন্দা

  • কড়েয়া থানা এলাকার ৮/৩ আহিরিপুকুর ফার্স্ট লেনের বাড়িতে এই বিস্ফোরণ হয়। ইতিমধ্যেই ঘটনাস্থলে ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা পৌঁছে গিয়েছেন।

তীব্র বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল কড়েয়া থানার অন্তর্গত আহিরিপুকুর এলাকা। বৃহস্পতিবার এই ঘটনায় এলাকা জুড়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। কারণ বিস্ফোরণের তীব্রতায় বাড়ির ছাদ ভেঙে পড়ে। আর তার জেরে গুরুতর আহত হয় চারজন। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই বিস্ফোরণের কারণ খতিয়ে দেখছে পুলিশ। কড়েয়া থানা এলাকার ৮/৩ আহিরিপুকুর ফার্স্ট লেনের বাড়িতে এই বিস্ফোরণ হয়। ইতিমধ্যেই ঘটনাস্থলে ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা পৌঁছে গিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে খবর, পাঁচতলা ওই বাড়িটির একতলায় থাকতেন আনন্দ দাস, তাঁর স্ত্রী কিরণ দাস, ৯ বছরের সন্তান এবং ১৬ বছরের ভাইজি। সাতসকালে বিকট শব্দে বাইরে বেরিয়ে আসেন স্থানীয় বাসিন্দারা। দেখতে পান ৮/৩ আহিরিপুকুর ফার্স্ট লেন ঠিকানার বাড়ির দেওয়ার ভেঙে পড়েছে। অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় একজন মাটিতে পড়ে আছেন। বাকিরা দেওয়াল চাপা পড়ে রয়েছেন। সঙ্গে সঙ্গে তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করার ব্যবস্থা করা হয়।

ইতিমধ্যেই লালবাজারের বিশেষ টিম সেখানে পৌঁছেছে। পৌঁছয় কড়েয়া থানার পুলিশও। ফরেনসিক টিমও হাজির হয়েছে। বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীও রয়েছে। প্রাথমিকভাবে তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, এটা গ্যাস সিলিন্ডার ফেটে বিস্ফোরণ ময়। কারণ বাড়ির গ্যাসের সিলিন্ডার একেবারেই নিরাপদে রয়েছে। তবে কীভাবে বিস্ফোরণ? তদন্ত শুরু হয়েছে। এই ঘটনায় আতঙ্কে স্থানীয়রা।

বন্ধ করুন